Inqilab Logo

শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

অনুমোদনহীন যন্ত্রাংশ বিক্রি: ইবির সেই কর্মকর্তাকে অব্যাহতি

ইবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০২২, ১০:৩৯ এএম

অনুমোদনহীন সরঞ্জাম বিক্রির অভিযোগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এস্টেট অফিসের সেই ভারপ্রাপ্ত পরিচালক টিপু সুলতানকে সাময়িক অব্যহতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। একইসাথে শোকজের জবাবে তার ও তার সহযোগীদের বক্তব্য ও ঘটনার বস্তুনিষ্ঠতা নিরূপন এবং লেকের পাশের গাছ বিক্রির টাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ফান্ডে জমা দেয়ার বিষয়টি অনুসন্ধান করতে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটিতে ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর ড. মামুনুর রহমানকে আহ্বায়ক ও ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মু. আতাউর রহমানকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, আইন বিভাগের প্রফেসর ড. রেবা মন্ডল, অর্থনীতি বিভাগের প্রফেসর ড. দেবাশীষ শৰ্মা ও গণিত বিভাগের প্রফেসর ড. আসাদুজ্জামান।

মঙ্গলবার (৩১ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মু. আতাউর রহমান স্বাক্ষরিত পৃথক দুইটি বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় স্টোরে রক্ষিত অব্যবহৃত মালামাল বিক্রয়ের বিষয়ে শোকজের জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তাকে দাপ্তরিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে উপ-রেজিস্ট্রার জনাব টিপু সুলতান, সহকারী রেজিস্ট্রার জনাব বকুল হোসেন, শাখা কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা নাজমুল হোসেনের শোকজ নোটিশের জবাবে তাদের বক্তব্য ও ঘটনার বস্তুনিষ্ঠতা নিরূপন এবং লেকের পাশের গাছ বিক্রির টাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ফান্ডে জমা দেয়ার বিষয়টি অনুসন্ধান করতে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেছেন ভিসি। কমিটিকে ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২৬ ও ২৭ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টোর রুম থেকে ৫০ টাকা দরে ৪৩টি কম্পিউটারের পুরনো মনিটর বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে এস্টেট দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত প্রধান টিপু সুলতান ও তার তিন সহকারী সহকারী রেজিস্ট্রার জনাব বকুল হোসেন, শাখা কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা নাজমুল হোসেনের বিরুদ্ধে। এছাড়াও ভাঙড়ি টিনের দরে (৪১ টাকা কেজি দরে) ৪৩টি সিপিউ, একটি পুরাতন টাইপিং মেশিন, প্রিন্টার, তিনটি ফটোকপি মেশিন এবং গড়পর্তা দামে একটি পুরনো এসি, ২৩ কেজি ওজনের ৬টি লোহার পাইপ, প্রায় সাড়ে চারশ কেজি পুরনো কাগজ বিক্রি করেছেন বলে জানা গেছে। জিনিসগুলো প্রায় ২০ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় গত ১৪ মে ওই চার কর্মকর্তাকে শোকজ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইবি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ