Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

কাবুলে আবারও ভারতীয় দূতাবাস চালুর আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০২২, ১০:৫৩ এএম

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ভারতীয় দূতাবাস আবার চালু করার আহ্বান জানিয়েছেন তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি। ভারত সরকারের সঙ্গে আফগানিস্তানের তালেবান সরকারের সম্পর্কের উন্নতি হচ্ছে বলেও খবর দিয়েছেন তিনি। মুত্তাকি ভারতের নিউজ চ্যানেল ‘সিএনএন নিউজ ১৮’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এ আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, তালেবান সরকার কাবুলে অন্যান্য দেশের দূতাবাস ও কূটনৈতিক মিশনগুলোর মতো ভারতীয় কূটনীতিকদেরও নিরাপত্তা রক্ষার নিশ্চয়তা দিচ্ছে।
২০২১ সালের ১৫ আগস্ট তালেবানের হাতে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ আসার পর বিশ্বের বহু দেশের মতো ভারত সরকারও কাবুলে নিজের দূতাবাস বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফ, কান্দাহার, হেরাত ও জালালাবাদে নিজের কনস্যুলেটগুলোও বন্ধ করে দেয় নয়া দিল্লি।
বিশ্বের কোনো দেশ এখন পর্যন্ত তালেবান সরকারকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি না দিলেও বহু দেশ তালেবানের সঙ্গে সম্পর্ক ও অর্থনৈতিক লেনদেন রক্ষা করে যাচ্ছে। এমনকি কাবুলে বহু দেশের দূতাবাসও চালু রয়েছে।
দীর্ঘদিন ধরে আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। কাবুলে যখনই যে সরকার ক্ষমতায় আসুক তার সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখেছে নয়াদিল্লি।
ভারতের নিরাপত্তা এবং অর্থনৈতিক ও ভূ-রাজনৈতিক স্বার্থের জন্য আফগানিস্তানের গুরুত্ব অপরিসীম বলে মনে করা হয়।
আফগানিস্তানে প্রভাব বিস্তারে গত দুই দশকে চারশোরও বেশি সামাজিক-অর্থনৈতিক এবং বড় বড় কিছু অবকাঠামো প্রকল্পে ৩০০ কোটি ডলারেও বেশি বিনিয়োগ করেছে ভারত। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক উন্নয়নে ডজন ডজন প্রকল্প ছাড়াও, দিলারাম-জারাঞ্জ মহাসড়ক নামে ২১৮ কিমি দীর্ঘ গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক তৈরি করে দিয়েছে ভারত। কাবুলে নতুন আফগান পার্লামেন্ট ভবনটিও তৈরি করেছে তারা।
২০২১ সালে তালেবান যখন আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করছিল তখন বিবিসি বাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দিল্লির জওহারলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের অধ্যাপক ড. সঞ্জয় ভরদোয়াজ বলেছিলেন, বৃহত্তর আঞ্চলিক অর্থনৈতিক অভিলাষ, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা এবং ভূ-রাজনৈতিক স্বার্থের জন্য ভারতের জন্য আফগানিস্তান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশ।
মধ্য এশিয়ার বাজারে ঢোকার জন্য ভারতের জন্য আফগানিস্তান খুবই জরুরি। আফগানিস্তানের ভেতর দিয়ে ইরান ও মধ্য এশিয়ার সাথে দুটো পাইপলাইন তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের। সূত্র : পার্সটুডে



 

Show all comments
  • Anwar+Hossain ২ জুন, ২০২২, ১১:৩৬ এএম says : 0
    বহু দেশ তালেবানের সঙ্গে সম্পর্ক ও অর্থনৈতিক লেনদেন রক্ষা করে যাচ্ছে। এমনকি কাবুলে বহু দেশের দূতাবাসও চালু রয়েছে।
    Total Reply(0) Reply
  • সৈয়দ নজরুল হুদা ২ জুন, ২০২২, ২:৪৯ পিএম says : 0
    দুতাবাস খুলবে,অথচ স্বীকৃতি দেবেনা-এটা আন্তর্জাতিক দ্বিচারিতা! এর অবসান চাই।।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান-ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ