Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

৮ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ

দ. কোরিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের সম্মিলিত মহড়ার জবাব উ. কোরিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ জুন, ২০২২, ১২:০৩ এএম

চার বছরেরও বেশি সময়ের পর মার্কিন বিমানবাহী রণতরী নিয়ে প্রথমবারের সম্মিলিত সামরিক মহড়া চালিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। শনিবারের এ মহড়ার একদিন পরেই স্বল্প-পাল্লার আটটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে জবাব দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। রোববার নিজেদের পূর্ব উপকূল থেকে সমুদ্র অভিমুখে এ ক্ষেপণাস্ত্রগুলো নিক্ষেপ করে পিয়ংইয়ং। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনীর জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ জানিয়েছে, দেশটির রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ের সুনান এলাকা থেকে অন্তত আটটি স্বল্প-পাল্লার এ ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। অন্যদিকে উত্তর কোরিয়া একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে বলে একটি সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে জাপানের বার্তাসংস্থা কিয়োডো। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া বিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ প্রতিনিধি সুং কিম সিউল সফর করেছেন। শনিবার সিউল ত্যাগ করেন এই মার্কিন বিশেষ প্রতিনিধি। এর একদিন পরেই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো নিক্ষেপ করা হয়। ফলে এই ঘটনাকে যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধির সিউল সফরের জবাব হিসেবেও মনে করা হচ্ছে। ২০১৭ সালের পর উত্তর কোরিয়া প্রথমবারের মতো পারমাণবিক পরীক্ষা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জল্পনা রয়েছে। এরই মধ্যে পিয়ংইয়ংয়ের কর্মকাণ্ডে সম্ভাব্য পারমাণবিক পরীক্ষার লক্ষণ ফুটে উঠেছে। তাই নিজেদের প্রস্তুতির জন্য গত শুক্রবার সমপর্যায়ের দক্ষিণ কোরীয় ও জাপানি কর্মকর্তার সঙ্গে দেখা করেন সুং কিম। জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নোবুও কিশিও বলেন, উত্তর কোরিয়া একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে এবং এই কাজটি ‘সহ্য করার মতো নয়।’ একটি ব্রিফিংয়ে তিনি জানান, উৎক্ষেপিত ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর মধ্যে অন্তত একটির গতিপথ পরিবর্তনশীল ছিল। ধারণা করা যেতে পারে এগুলো ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা এড়াতে যেতে সক্ষম। এর আগে নিজেদের বৃহত্তম আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম)-সহ একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া। সর্বশেষ ২৫ মে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালায় উত্তর কোরিয়া। সেসময় বাইডেন পূর্ব এশিয়া ত্যাগ করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই একে একে তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছিলেন কিম। খবরে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার প্রতিক্রিয়ায় দেশটির ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দিতে কয়েকদিন আগেই যুক্তরাষ্ট্র আহ্বান জানিয়েছিল। অবশ্য চীন-রাশিয়ার ভিটোর কারণে তাদের প্রস্তাব হালে পানি পায়নি। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে উত্তর কোরিয়াকে আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রসহ নানান পাল্লার একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে দেখা গেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এশিয়া সফর শেষে গত ২৫ মে-তেও তারা তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছিল। এর মধ্যে প্রথমটি তাদের সর্ববৃহৎ আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র হোয়াসং-১৭ ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি মাঝপথেই অকার্যকর হয়ে যায় বলে সেসময় বলেছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা, তৃতীয়টি ছিল স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র। শনিবার দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের নৌযানগুলো জাপানি দ্বীপ ওকিনাওয়া আন্তর্জাতিক জলসীমার কাছে তাদের তিনদিনের মহড়া শেষ করে। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উ. কোরিয়া


আরও
আরও পড়ুন