Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

তালতলীতে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ১৩

তালতলী(বরগুনা) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০২২, ৬:৩৩ পিএম

বরগুনার তালতলীতে পচাঁকোড়ালিয়া ইউনিয়নে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আ: রাজ্জাক হাং ও আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু জাফর খোকনের সমর্থকদের মধ্যে পৃথক সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত মহিলাসহ ১৩ জন আহত হয়।

বুধবার (০৮ জুন) দুপুরের দিকে ঐ ইউনিয়নের বড়পাড়া ও কলারং এলাকায় ঘন্টাব্যাপী পৃথক এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে দুই গ্রুপকে সরিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা যায়, নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর কর্মী-সর্মাথকরা বড়পাড়া এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। সে সময় আনারসের প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর সর্মাথকরা মুখোমুখি হয়। পরে দুই পক্ষের কর্মীদের ভিতরে কথার কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উভয় প্রার্থীর সমর্থকরা এগিয়ে এলে তাদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পরে দুই গ্রুপকে সরিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের উদ্ধার করে বরগুনা ও বরিশাল হাসপাতালে পাঠানো হয়। হামলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক রাব্বি (১৮),ছিদ্দিক(৪৫),লিটন মৃধা (৪০)সহ ৮ জন আহত হয়। তবে ৫ জনের নাম এখনো জানা যায়নি। অন্যদিকে নৌকা প্রার্থীর সমর্থক সাগর হোসেন অলি,ইদ্রিস,আলীসহ দুই মহিলা আহত হয়েছে। তবে দুই মহিলার নাম জানা জানা যায়নি। গুরুতর আহত রাকিব মিয়াকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, আমার কর্মী-সমর্থকরা ভোট চাইতে গেলে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা দেড় থেকে দুই শত সন্ত্রাসী নিয়ে এসে আমার কর্মী-সমথর্কদের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় আমার পাঁচজন কর্মী পাঁচ জন আহত হয়েছেন। আমার এক সমার্থকের বাড়ি ভাংচুর করেন তারা। আরও বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বহিরাগতদের নিয়ে প্রায়ই আমার প্রচারে বাধাঁ ও পরিকল্পিত হামলা করে আসছে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে বিচার দাবি করছি।

অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু জাফর খোকন হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, বহিরাগত লোকজন নিয়ে নৌকার প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা আমাদের ওপর হামলা চালিয়ে আট জন আহত করেছেন। এখন তারা আমার ওপর দোষ চাপানোর পাঁয়তারা করছে। আমার কর্মী রাব্বী গুরুত্বর আহত হয়েছে।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে। দুই পক্ষ থেকে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



 

Show all comments
  • jack ali ৮ জুন, ২০২২, ৬:৩৭ পিএম says : 0
    এই আল্লাহ দ্রোহী তোরা মারামারি করে মরে যা তাহলে আমরা একটু শান্তিতে থাকতে পারবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আহত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ