Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪

‘মেসি যখন কথা বলে, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টও চুপ থাকে’

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জুন, ২০২২, ১২:০২ এএম

লিওনেল মেসিকে স্বল্পভাষী হিসেবেই জানেন সবাই। তবে তারকাখ্যাতির এমন শিখরে তিনি পৌঁছেছেন যে তার বক্তব্য বহন করে আলাদা তাৎপর্য। তখন বাকিরা হয়ে হয়ে পড়েন মনোযোগী ও আগ্রহী শ্রোতা। তা মেসির বিপরীতে আর্জেন্টিনার কোচ-ই থাকুন কিংবা প্রেসিডেন্ট! কথাগুলো বলেছেন দলটির গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেজ।
আর্জেন্টিনায় মেসির অবস্থান কতটা উঁচুতে তা বোঝা গেছে মার্তিনেজের পর্যবেক্ষণে। এমনিতে আগ বাড়িয়ে কিছু বলেন না রেকর্ড সাতবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি। তবে দলের অধিনায়কের দায়িত্ব যেহেতু তার কাঁধে, সেহেতু নানা বিষয়ে মুখ খুলতেই হয় তাকে। সতীর্থদের অনুপ্রেরণাও দিতে হয় ৩৪ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে। তেমনই এক ঘটনার উদাহরণ দিয়েছেন অ্যাস্টন ভিলার গোলরক্ষক মার্তিনেজ।
গত বছর ব্রাজিলের মাটিতে কোপা আমেরিকার শিরোপা জেতে আর্জেন্টিনা। ফাইনালে মারকানা স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা হারিয়েছিল চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকেই। চ্যাম্পিয়ন হয়ে ২৮ বছরের দীর্ঘ শিরোপাখরার অবসান ঘটিয়েছিল আলবিসেলেস্তেরা। ফাইনালের আগে সতীর্থদের উদ্দেশে বক্তব্য দিয়েছিলেন মেসি। যা উজ্জীবিত করেছিল গোটা আর্জেন্টিনা দলকে। মেসি কথা বলার সময় শিহরণ অনুভব করা মার্তিনেজ আমেরিকান ওটিটি প্ল্যাটফর্ম অ্যামাজন প্রাইম ভিডিওকে বলেছেন, ‘সে একটি বক্তব্য দিয়েছিল এটা বলে যে এটাই (কোপা আমেরিকায়) তার শেষ ম্যাচ এবং সে তার সবকিছু নিংড়ে দেবে। মেসির কথা শুনে রোমাঞ্চে আমার গায়ে কাঁটা দিয়েছিল।’ এরপর পিএসজি তারকা মেসির প্রসঙ্গে মার্তিনেজ যোগ করেছেন, ‘সবাই চুপ করে থাকে। কোচ, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট, যে-ই হোক না কেন, মেসির কথা বলার সময় সবাই চুপ হয়ে যায়।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ‘মেসি যখন কথা বলে
আরও পড়ুন