Inqilab Logo

শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৪ মুহাররম ১৪৪৪

সিলেটে হত্যা মামলার রায়ে ১ আসামির মৃত্যুদন্ড

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুন, ২০২২, ৮:৪৫ পিএম

সিলেটে বিয়ানীবাজার উপজেলার রাজমিস্ত্রী নজরুল ইসলাম হত্যা মামলার রায়ে একমাত্র আসামিকে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক মো. মিজানুর রহমান ভুঁইয়া এ রায় প্রদান করেন ।
মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- বিয়ানীবাজার থানার টিকরপাড়া গ্রামের মুহিব আলীর ছেলে আব্দুল মুবিন লিমন। তিনি বর্তমানে কারাগারে আটক রয়েছে। আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ২৮ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বিয়ানীবাজার উপজেলার নন্দিরফল গ্রামের রাজমিস্ত্রী নজরুল ইসলামকে ফোন করে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে ও মাথায় আঘাত করে খুন করা হয়। বিয়ানীবাজার টিকরপাড়াস্ত জনৈক মুহিবুর রহমানের বাড়ির পাশে নন্দিরফল রাস্তায় নজরুলের মৃতদেহ রয়েছে খবর পেয়ে সন্ধ্যায় নজরুলের স্ত্রী ও ৪ মেয়ে গিয়ে লাশ শনাক্ত করেন এবং বিয়ানীবাজার থানাপুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী হাসনা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা রেখে বিয়ানীবাজার থানার মামলা নং২৬(১২)১৯ইং দাখিল করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই শাহ আলম ভূইয়া মোবাইল ফোনের কল লিস্টের সূত্র ধরে ওই সালের ৩১ ডিসেম্বর গ্রেফতার করেন আব্দুল মুবিন লিমনকে। পরবর্তীতে ওই দিনেই সিলেটের প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন করিমের ১৬৪ ধারা জবান বন্দি দিয়ে তাঁর কাছে হত্যার ঘটনা স্বীকার করে লিমন। এ ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০২০ সালের ২৯ জুন আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালতে ২৭ জন সাক্ষির মধ্যে ১৫ জন সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে লিমনের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মৃত্যুদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।
মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মো. আব্দুর রহমান আফজাল বলেন, নিহত নজরুলের পরিবার ন্যায় বিচার পেয়েছেন, রায়টি সন্তোষজনক। রায়ে নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী ও মামলার বাদী হাসনা বেগম আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে এরায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মৃত্যুদন্ড


আরও
আরও পড়ুন