Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ভারতকে সাম্প্রদায়িক উস্কানি বন্ধের আহ্বান গণতন্ত্র মঞ্চের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত সমাজের মধ্যে কেবল হিংসা, ঘৃণা, বিদ্বেষ ও বিভাজন তৈরী করে। তাই গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা এই ধরনের সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক অতৎপরতা থেকে বিরত থাকার জন্য ভারতের ক্ষমতাসীন মোদি সরকার ও বিজেপির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
ইসলাম ধর্মের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) সম্পর্কে ভারতে বিজেপি নেতা-নেত্রীদের কটুক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সাত দলের নতুন জোট গণতন্ত্র মঞ্চ।
রাজধানীতে গণঅধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গতকাল গণতন্ত্র মঞ্চের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের এক সভা হয়। সেখানে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতৃবৃন্দের সম্প্রতি ইসলাম ধর্মের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর সম্পর্কে কটুক্তির নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, জনগণের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা সমাজের মধ্যে কেবল ঘৃণা, হিংসা-বিদ্বেষ এবং বিভাজন তৈরি করে। কোনো প্রকৃত ধার্মিকই অপর ধর্ম সম্পর্কে অবমাননাকর কোনো বক্তব্য প্রদান করতে পারেন না। ভারতের বিজেপি সরকার ধারাবাহিকভাবে যে সাম্প্রদায়িক সহিংসতাকে উস্কানি দিয়ে চলেছে তা ভারতসহ গোটা উপমহাদেশে একটি সাম্প্রদায়িক উত্তেজনার জমিন তৈরি করছে। সভায় নেতৃবৃন্দ একইসাথে বাংলাদেশ সরকারকে বিজেপির এই সাম্প্রদায়িক অপতৎপরতা ও বিভাজনের রাজনীতি সম্পর্কে ভারত সরকারের প্রতি প্রতিবাদ জানানোরও আহ্বান জানান।

গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব নুরুল হক নুরের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, নাগরিক ঐক্যের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ্ কায়সার, জেএসডির সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, গণসংহতি আন্দোলনের আবুল হাসান রুবেল, রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের হাসনাত কাইয়ুম, গণঅধিকার পরিষদের রাশেদ খান, ফারুক হাসান, আবু হানিফ, গণসংহতি আন্দোলনের মনির উদ্দিন পাপ্পু, বিপ্লবী ওয়াকার্স পার্টির আকবর খান, নাগরিক ঐক্যের মোমিনুল ইসলাম, সাকিব আনোয়ার, ভাসানী অনুসারী পরিষদের হাবিবুর রহমান রিজু, রাষ্ট্রসংস্কার আন্দোলনের হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবুল বলেন, সভায় মূলত গণতন্ত্র মঞ্চের আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ করা, কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শারীরিকভাবে অসুস্থ হওয়ায় সেখানে জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, গণসংহতি আন্দোলনের জোনায়োদ সাকী সহ কয়েকজন উপস্থিত হতে পারেননি। ফলে গণতন্ত্র মঞ্চ নিয়ে খুব বেশি আলোচনা হয়নি। আগামী সপ্তাহে পরবর্তী সভায় এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ