Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪

স্বামী হত্যায় দোষী সাব্যস্ত ‘হাউ টু মার্ডার ইয়োর হাজব্যান্ড’ উপন্যাসের লেখিকা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০২২, ৯:৫৭ এএম

ন্যান্সি ক্র্যাম্পটন ব্রফি, যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা। বর্তমানে তার বয়স ৭১ বছর। তিনি একটি বই লিখেছিলেন, যার নাম ‘হাউ টু মার্ডার ইয়োর হাজব্যান্ড’ (কীভাবে আপনার স্বামীকে খুন করবেন)। এবার তিনি নিজেই তার স্বামীকে খুন করার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগন রাজ্যের পোর্টল্যান্ড নগরীর ১২ সদস্যের জুরি তাকে স্বামী হত্যায় দোষী সাব্যস্ত করেছেন। তিনি গুলি করে স্বামী ড্যানিয়েল ব্রফিকে খুন করেন।

গত ২৫ মে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগন রাজ্যের পোর্টল্যান্ডের একটি আদালত নিজের স্বামীকে গুলি করে হত্যার দায়ে এই রায় দেয়। পরাধ প্রমাণ হওয়ার পরে জনাকীর্ণ আদালতে ন্যান্সির মধ্যে কোনো প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। জানা গেছে, আর্থিক সমস্যার কারণে ২০১৮ সালের ২ জুন স্বামী ড্যানিয়েলকে গুলি করে হত্যা করেন ন্যান্সি। পরে, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর থেকে হাজতে আছেন তিনি। যদিও আদালতে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করেন এই লেখিকা।

তবে মামলার প্রসিকিউটরেরা প্রমাণ করেছেন, ন্যান্সি একটি ঘোস্ট গান কিনে সেটার সঙ্গে দোকান থেকে কেনা পিস্তলের যন্ত্রাংশ বদল করে এ খুন করেছেন। ন্যান্সি তার স্বামীকে তার কর্মক্ষেত্রেই গুলি করেছিলেন। সেখানে কোনো ক্যামেরা বা সাক্ষী ছিল না। স্বামীকে হত্যার পর তার নামে থাকা বিপুল অঙ্কের জীবনবিমা পলিসি সংগ্রহ করার জন্য বেরিয়ে পড়েন তিনি।

গোস্ট গানগুলো ঘরে বসেই থ্রিডি প্রিন্টিং মেশিনে তৈরি করা যায় অথবা অনলাইনে আলাদা আলাদা করে এগুলোর বিভিন্ন অংশ কেনা যায়। কেউ চাইলে এ অংশগুলো জুড়ে দিয়ে একটি সম্পূর্ণ বন্দুক তৈরি করে ফেলতে পারেন। এই বন্দুকগুলোর কোনো সিরিয়াল নম্বর থাকে না বলে এগুলোকে ট্রেস করা যায় না। তবে সেই অস্ত্র খুঁজে পায়নি পুলিশ।

এদিকে ২০১১ সালে প্রকাশিত ‘হাউ টু মার্ডার ইয়োর হাজব্যান্ড’ বইয়ে ন্যান্সি ধরা না পড়ে কীভাবে খুন করতে হয়, তার নানা উপায় বিস্তারিতভাবে বাতলে দিয়েছেন। সেখানে খুনের মোটিভ হিসেবে তিনি বর্ণনা করেছেন- আর্থিক, মিথ্যাবাদী, প্রতারক, অ্যাবিউজার ইত্যাদি বিষয়কে। আর খুন করার অনেকগুলো পদ্ধতিরও বর্ণনা দিয়েছেন তিনি। ছুরি দিয়ে মারলে সেটা হবে ব্যক্তিগত ও কাছাকাছি থেকে খুন, প্রচুর রক্ত ছড়াবে চারপাশে; বিষ হচ্ছে নারীর অস্ত্র, খুব সহজে খুঁজে বের করা যায়; বন্দুক অনেক শব্দ করে, ঝামেলাপূর্ণ, আর চালাতে একটু দক্ষতা লাগে- এসবই লেখা আছে তার বইতে। তবে অনেক বছর আগে লেখাটি প্রকাশিত হয়েছিল বলে এটিকে বিচারক ও জুরিরা তাদের বিচারপ্রক্রিয়া থেকে বাইরে রেখেছেন।

সূত্র: মেট্রো ইউকে



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ