Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

চালক-মালিক-যাত্রীদের প্রতি বিআরটিএ’র নির্দেশনা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালাবেন না। চালককে একটানা ৫ ঘণ্টা ও দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি গাড়ি চালাতে বাধ্য করবেন না। চলন্ত গাড়িতে ওঠানামা করবেন না, দৌড়ে অথবা মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রাস্তা পার হবেন নাসহ মোটরযান মালিক, চালক, যাত্রী ও পথচারীদের প্রতি ১৫টি আহŸান জানিয়েছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। গতকাল বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিআরটিএ।

এতে মোটরযান চালকদের উদ্দেশে বলা হয়, বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্স, নিয়োগপত্র, হালনাগাদ কাগজপত্র ও সিট বেল্ট বাঁধা ব্যতীত গাড়ি চালাবেন না। গতিসীমা লঙ্ঘন কর গাড়ি চালাবেন না, গাড়ি চালানো অব্স্থায় মোবাইল ফোন বা ইয়ার ফোন ব্যবহার করবেন না। ওভারটেকিং নিষিদ্ধ এলাকা, রাস্তার বাঁকা ও সরু ব্রিজে ওভারটেকিং করবেন না, অযথা হর্ন বাজাবেন না। মাদককে না বলুন। নেশাজাতীয় দ্রব্য সেবন করে গাড়ি চালাবেন না। উল্টোপথে গাড়ি চালাবেন না এবং গাড়িতে উচ্চসরে গান বাজাবেন না।

মোটরযান মালিকদের বলা হয়, ড্রাইভিং লাইসেন্সের বৈধতা যাচাই করে গাড়ি চালক নিয়োগ করবেন। চালককে একটানা ৫ ঘণ্টা ও দিনে ৮ ঘণ্টার বেশি গাড়ি চালাতে বাধ্য করবেন না। ফিটনেসবিহীন, যান্ত্রিক ত্রæটিযুক্ত ও ধোঁয়া নির্গমনকারী গাড়ি রাস্তায় নামাবেন না।

এছাড়া যাত্রীদের উদ্দেশে বলা হয়, চলন্ত গাড়িতে ওঠানামা করবেন না। পণ্যবাহী মোটরযানে যাত্রী হয়ে উঠবেন না। শরীরের কোনো অংশ গাড়ির বাইরে রাখবেন না, চালকের মনোযোগ বিঘœ ঘটে এমন কিছু করবেন না। তাড়াহুড়া করে গাড়ি থেকে নামবেন না, গাড়িতে উঠতে ডান পা এবং নামতে বাম পা আগে ব্যবহার করবেন। চালক, কন্ডাক্টরের সাথে খারাপ আচরণ করবেন না, গাড়িতে উঠে হৈচৈ করবেন না।
সব শেষে পথচারীদের উদ্দেশে বলা হয়, জেব্রাক্রসিং, ফুটওভার ব্রিজ ও আন্ডারপাস দিয়ে রাস্তা পারাপার হোন। দৌড়ে অথবা মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রাস্তা পার হবেন না। ফুটপাথ ব্যবহার করুন, অন্যথায় রাস্তার ডান পাশ দিয়ে সাবধানে চলুন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিআরটিএ


আরও
আরও পড়ুন