Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

অগ্নিপথ প্রকল্প ঘিরে অগ্নিগর্ভ ভারত

পরিস্থিতি সামাল দিতে পিছুটান সরকারের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

অগ্নিপথ প্রকল্প ঘিরে ভারতজুড়ে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি। সেনাবাহিনীতে নিয়োগের নয়া নিয়মের প্রতিবাদে প্রবল বিক্ষোভ চলছে গোটা দেশে। বিহার, উত্তরপ্রদেশের মতো রাজ্যগুলিতে বেশ কয়েকটি ট্রেন জ্বালিয়ে দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। বিক্ষোভের আঁচ পড়েছে পশ্চিমবঙ্গেও। ফলে চাপের মুখে পরিস্থিতি সামাল দিতে পিছুটান দিয়েছে কেন্দ্রের মোদি সরকার।

গতকাল শনিবার টুইট করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সিএপিএফ ও অসম রাইফেলসে নিয়োগের ক্ষেত্রে অগ্নিবীরদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ থাকবে। ওই আধা সামরিক বাহিনীগুলিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সসীমাতেও ৩ বছরের ছাড় দেওয়া হবে অগ্নিবীরদের। শুধু তাই নয়, বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে অগ্নিবীর নিয়োগে প্রথম ব্যাচের জন্য ৫ বছরের ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এদিকে, গতকাল সেনার তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে করেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। অগ্নিপথ ঘিরে দেশজুড়ে চলা পরিস্থিতির পর্যালোচনায় এই বৈঠক বলে জানা গিয়েছে।
উল্লেখ্য, সেনাবাহিনীর লোকবল অক্ষুন্ন রেখে আধুনিকীকরণের স্বার্থে কেন্দ্রের নতুন প্রকল্প অগ্নিপথ। এর মাধ্যমে সেনায় অস্থায়ীভাবে ৪ বছরের জন্য কর্মী নিয়োগ হবে। যাদের পোশাকি নাম ‘অগ্নিবীর’। কিন্তু কেন্দ্রের ঘোষিত এই অগ্নিপথ প্রকল্প দেশজুড়ে সেনায় চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হচ্ছে। এভাবে অস্থায়ী পদে নিয়োগ নিয়ে চাকরিপ্রার্থীরা অসন্তুষ্ট। ইতোমধ্যেই ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে বিক্ষোভ।

সরকারের দাবি, এভাবে সেনায় নিয়োগ হলে বেতন এবং পেনশন বাবদ অর্থ সাশ্রয় হবে। সেই টাকা সেনার প্রযুক্তির উন্নতির কাজে লাগানোর ভাবনা রয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের। কেনা হবে আরো আধুনিক অস্ত্রশস্ত্র। যুব সমাজকে দেশসেবা এবং প্রশিক্ষণ নেওয়ার সুযোগ দিতে চাইছে সরকার। বর্তমানে ভারতীয় সেনা বাহিনীর জওয়নাদের গড় বয়স ৩২ বছর। অগ্নিবীরদের নিয়োগের ফলে ১০ বছরের মধ্যে সেটা নেমে আসবে ২৬ বছরে। এক্ষেত্রে বাহিনী তরতাজা এবং শারীরিক সামর্থ্যে ভরপুর হবে বলে দাবি কেন্দ্রের। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ