Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে কৃষিকাজে সেনা নামাচ্ছে শ্রীলংকা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০২২, ১১:৩২ এএম

ভবিষ্যৎ খাদ্য ঘাটতি এড়ানো এবং উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন অনুর্বর জমি চাষাবাদে অংশ নেবে শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনী। নতুন এক কৃষি কর্মসূচির আওতায় শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনী চলতি মৌসুমে দেড় হাজার একরের বেশি অনুর্বর এবং পরিত্যক্ত জমি চাষাবাদ করবে।
শনিবার দেশটির সংবাদমাধ্যম নিউজফার্স্ট ও ইকোনমি নেক্সটের বরাত দিয়ে ভারতীয় রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।
১৯৪৮ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর এবারই প্রথম সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক সংকটের মুখোমুখি হয়েছে শ্রীলঙ্কা। চলমান সংকটে খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির সম্পূরক হিসেবে দেশটির সেনাবাহিনী বৃহস্পতিবার গ্রিন এগ্রিকালচার স্টিয়ারিং কমিটি (জিএএসসি) গঠন করেছে।
করোনা মহামারি, জাতীয় অর্থনীতি পরিচালনায় সরকারের অদক্ষতা, বিশ্বজুড়ে জ্বালানির মূল্য বেড়ে যাওয়া ও রাষ্ট্রীয় কোষাগারে বৈদেশিক মুদ্রার মজুদ তলানিতে নেমে যাওয়ায় শ্রীলঙ্কায় বিপর্যয়কর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। জ্বালানি এবং রান্না করার গ্যাস কেনার জন্য ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকলেও শূন্য হাতে ফিরতে হচ্ছে লঙ্কানদের।
বৈদেশিক মুদ্রার মজুত কমে যাওয়ায় খাদ্য, জ্বালানি ও ওষুধের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি করতে পারছে না দক্ষিণ এশিয়ার এই দ্বীপ দেশটি।
সরকারের চাষাবাদ কর্মসূচির সহায়ক প্রক্রিয়া হিসেবে আগামী জুলাই মাসের প্রথম দিকে সেনাবাহিনীর ওই প্রকল্প শুরু হবে। অত্যন্ত জরুরি এই প্রকল্পে নেতৃত্ব দেবেন দেশটির সেনাবাহিনীর কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ভিকুম লিয়ানাগে। এছাড়া পুরো প্রকল্প তত্ত্বাবধান করবেন চিফ অব স্টাফ মেজর জেনারেল জগথ কোডিথুওয়াক্ক।
শ্রীলঙ্কার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম নিউজফার্স্ট বলছে, সৈন্যরা প্রথমে কৃষি বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করে নির্বাচিত কিছু বীজ বপণ, চাষের জন্য আগাছা পরিষ্কার এবং মাটি প্রস্তুত করবেন। সব নিরাপত্তা বাহিনীর সদর দপ্তর এবং আঞ্চলিক স্তরের কার্যালয় থেকে এই কাজে নিযুক্ত হওয়ার জন্য তাদের সম্ভাব্যতা যাচাই করা হচ্ছে।
দক্ষিণ এশিয়ার এই দ্বীপ দেশটি মারাত্মক খাদ্য ঘাটতির মুখোমুখি হয়েছে। এই সংকট কাটাতে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকার বিশ্বের বন্ধু রাষ্ট্রগুলোর কাছে সহায়তা চেয়েছে। বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে বলেছেন, চালের দামের অস্বাভাবিক বৃদ্ধি ঠেকাতে ভারত থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা।
গত মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার এই প্রধানমন্ত্রী জানান, নগদ অর্থ সংকটে ভুগতে থাকা শ্রীলঙ্কার জ্বালানি ক্রয়ে সহায়তা করবে ভারতের কাছ থেকে পাওয়া নতুন ঋণ। আগামী জুলাই থেকে পরবর্তী চার মাসের জন্য সাড়ে ৩ হাজার মেট্রিক টন এলপিজি চালান ইতোমধ্যে শ্রীলঙ্কায় পৌঁছেছে।
উল্লেখ্য, গোতাবায়ার সারসংক্রান্ত বিতর্কিত কৃষিনীতি কার্যকরের আগে শ্রীলংকা চাল উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ ছিল। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কা


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ