Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

নূপুর শর্মার মন্তব্যে কলকাতা বিধানসভায় নিন্দাপ্রস্তাব পাস

বাংলায় সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা চলছে’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

নূপুর শর্মা ইস্যু এবার কলকাতা রাজ্য বিধানসভায়। হযরত মুহাম্মদ (স.)-কে নিয়ে দিল্লিতে সাসপেন্ডেড বিজেপি মুখপাত্রের বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে সম্প্রীতি নষ্ট হচ্ছে। কিন্তু বাংলা সবসময়ে শান্তির পক্ষে, শান্তি বজায় রেখেছে- এ মর্মে সোমবার রাজ্য বিধানসভায় নুপূর শর্মার বিরুদ্ধে নিন্দাপ্রস্তাব পেশ হয়। শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এ প্রস্তাব পেশের পর মুখ্যমন্ত্রী আবেদন জানান, সকলে মিলে তার প্রস্তাব সমর্থন করুন। এরপর প্রস্তাবটি পাশ হয়।

এদিকে, গতকালই নারকেলডাঙা থানায় সাসপেন্ডেড বিজেপি নেত্রীর মন্তব্যের জন্য তাঁকে হাজিরার জন্য সমন পাঠিয়েছিল। নুপূর শর্মা ইমেল করে আরো চার সপ্তাহ সময়ে চেয়ে নিয়েছেন। গতকাল সোমবার বিধানসভার অধিবেশন চলাকালে উঠে আসে নুপূর শর্মা প্রসঙ্গ। শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা সম্প্রীতি বজায় রাখার লক্ষ্যে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছি। তবে সারা দেশে যেভাবে সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা হয়েছে, তা আসলে মূল বিষয় কর্মসংস্থান ও উন্নয়ন থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা। ধর্মের নামে বিজেপির এক মুখপাত্র মন্তব্যের জেরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা চলছে। এ ধরনের মন্তব্য করা এবং তাকে ঘিরে উস্কানি দেওয়ার চেষ্টার বিরুদ্ধে অবিলম্বে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক’।

এরপর মুখ্যমন্ত্রী সকলের কাছে আবেদন করে বলেন, ‘আপনারা সকলে হাত তুলে পার্থদার প্রস্তাব সমর্থন করুন’। পরে তা গৃহীত হয়েছে। এদিকে, মহানবী (স.)কে নিয়ে নুপূর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে তার বিরুদ্ধে নারকেলডাঙা থানায় এফআইআর দায়ের করেছিলেন জনৈক ব্যক্তি। তার ভিত্তিতে ২০ জুন অর্থাৎ আজ তাঁকে হাজিরার জন্য সমন পাঠানো হয়। কিন্তু নুপূর শর্মা নিরাপত্তা ইস্যুর প্রসঙ্গ তুলে চার সপ্তাহের সময় চেয়েছেন। ইমেল পাঠিয়ে তিনি জানান, সুরক্ষা নিয়ে চিন্তিত, চার সপ্তাহ সময় দেওয়া হোক। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ