Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

সিংড়ায় বিধবার ঘরে যুবক, আ’লীগ ও যুবলীগের দুই নেতা আটক

লক্ষাধিক টাকা নেওয়ার অভিযোগ আ’লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে

সিংড়া (নাটোর)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০২২, ৪:১৮ পিএম

নাটোরের সিংড়ায় এক সংখ্যালঘু বিধবার ঘর থেকে ইউনুস আলী নামের একজন মুসলিম যুবককে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করেছে স্থানীয়রা। উপজেলার ইটালি ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইউনুস আলী বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল এলাকার তয়জাল ইসলামের ছেলে। অভিযোগ উঠেছে লক্ষাধিক টাকায় তাঁদেরকে ছেড়ে দিয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতারা। এ ঘটনায় ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক রওশন আলী ও যুবলীগের কর্মী সাইফুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, বাঁশবাড়িয়া গ্রামে ধান কাঁটতে এসে মৃত গোপালের স্ত্রীর সঙ্গে পরিচয় হয় ইউনুস আলীর। এরপর তাঁদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। মোবাইল-ফোনে যোগাযোগ করে সোমবার রাতে গোপালের বাড়িতে যায় ইউনুস আলী। এলাকাবাসী বিষয়টি টের পেয়ে তাঁদের দুজনকে হাতেনাতে আটক করে। স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রওশন আলী, ইউপি সদস্য কুরবান আলী, আ’লীগ নেতা আনোয়ার হোসেন আরোন, যুবলীগ নেতা সবুজ আলী, সাইফুল ইসলাম, শাহিন আলম, সাদ্দাম হোসেন এর নেতৃত্বে কয়েকজন তাঁদেরকে আটক করে লক্ষাধিক টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সংখ্যালঘু বিধবার জমির দলিল গ্রামের মজিবুর রহমান নামের একজনের কাছে রেখে আনুমানিক ৭০ হাজার টাকা ও যুবকের বাবার কাছ থেকে আরও ১ লক্ষ টাকা নিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতারা।

মজিবুর রহমান বলেন, বিধবা নারী আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। কিন্তু কত টাকা বলা যাবে না, সমস্যা আছে। ওই নারী নিজেই বলবে। যুবলীগ নেতা সবুজ আলী জানান, আমরা রাতে তাঁদেরকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করি। সকালে ইউনুস আলীর বাবা বড়াইগ্রামের জনপ্রতিনিধিসহ এসে তাঁকে জুতা মেরে নিয়ে গেছে। তবে টাকা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রওশন আলীর মুঠোফোনে কয়েকবার কল দিয়ে বন্ধ পাওয়া যায়। বিকেলে তাঁকে আটক করে পুলিশ।

ইউপি সদস্য কুরবান আলী বলেন, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না, সকাল থেকে সারাদিন সিংড়ায় মিটিং এ ছিলাম। আমাকে ফাঁসানোর জন্য নাম বলা হয়েছে।

ইটালি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মতিউর রহমান রাজা বলেন, ঘটনাটি শুনেছি, তারা সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সবাই খুবই শৃঙ্খল ও ভদ্র প্রকৃতির মানুষ। পুলিশ দুজনকে আটক করেছে শুনেছি। তবে তারা টাকা নিয়ে ওই যুবককে ছেড়ে দিয়েছে কি না বিষয়টি জানিনা।

সিংড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় দুজনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আটক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ