Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪

জার্মানির হাউইৎজার কামান ইউক্রেনে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২২, ১২:০৪ এএম

ইউক্রেনের জন্য জার্মানির প্রতিশ্রুত ভারি অস্ত্রশস্ত্রের প্রথম চালানে জার্মানির স্ব-চালিত ছোট কামান বা হাউইৎজার ইউক্রেনে পৌঁছেছে। মঙ্গলবার ইউক্রেইনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ওলেকসি রেজনিকভ এ খবর নিশ্চিত করেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। রাশিয়ার তুলনায় ইউক্রেনের অস্ত্রের মজুদ এমনিতেই কম; রুশ সেনাদের মোকাবেলা করতে গিয়ে দেশটির সোভিয়েত আমলের অস্ত্রভাণ্ডারে থাকা গোলাবারুদে টানও পড়েছে, এজন্য পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে আরও অত্যাধুনিক কামান চাইছে তারা। “আমাদের গুদাম ফের পূরণ হচ্ছে। ইউক্রেনের কামান পরিবারে জার্মান পানসাহাউবিৎসা ২০০০, সঙ্গে প্রশিক্ষিত ইউক্রেনীয় ক্রু যুক্ত হয়েছে,” সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমনটাই বলেছেন রেজনিকভ। পানসাহাউবিৎসা ২০০০ জার্মানির ভাণ্ডারে থাকা শক্তিশালী কামানের মধ্যে অন্যতম; এটি ৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরের লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে। চলতি বছরের মে-তে জার্মানি ইউক্রেনকে ৭টি স্ব-চালিত হাউইৎজার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। নেদারল্যান্ডসও কিইভকে এই ধরনের ৫টি কামান পাঠানোর অঙ্গীকার করেছে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের প্রধান কর্মকর্তা আন্দ্রি ইয়েরমাক এক পোস্টে জার্মানির প্রতিশ্রুতি দেওয়া অন্যান্য অস্ত্রশস্ত্রের কথাও উল্লেখ করেছেন। সেসব অস্ত্রশস্ত্রের মধ্যে রয়েছে- ৩০টি গিপাদ ট্যাংক, তিনটি এমএআরএস টু মাল্টিপল রকেট লঞ্চার এবং কাঁধে রেখে ছোড়া যায় এমন ৫০০টি স্টিংগার ক্ষেপণাস্ত্র। রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জার্মানির হাউইৎজার কামান ইউক্রেনে
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ