Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

টিআইবি-সিপিডির অনেক বক্তব্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত

সেমিনারে তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২২, ১২:০১ এএম

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এবং সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) অনেক বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
গতকাল বুধবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে পদ্মা সেতুর অবদান শীর্ষক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন। সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটি।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, তৎকালীন সময়ে টিআইবি সংবাদ সম্মেলন করে বলেছিল, পদ্মা সেতুতে দুর্নীতি হয়েছে। বিশ্বব্যাংক যেটি বলেছে, সেটি সত্য। কিন্তু কানাডার আদালতে তা মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। অর্থাৎ টিআইবি যে বক্তব্যগুলো দেয়, সেগুলো যে পলিটিক্যালি মোটিভেটেড বা রাজনৈতিকভাবে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, সেটিই প্রমাণিত হয়েছে। সিপিডি-ও বিভিন্ন সময় যে বক্তব্যগুলো দেয়, সেগুলোর অনেকগুলোই যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত,টিআইবি-সিপিডির অনেক বক্তব্যই যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, পদ্মা সেতু নিয়ে তাদের বক্তব্য সেটিই প্রমাণ করে দেয়।
হাছান মাহমুদ বলেন, পদ্মা সেতু শেখ হাসিনার সক্ষমতার প্রতীক। কারণ পদ্মা সেতু নিয়ে যে পরিমাণ ষড়যন্ত্র হয়েছে, তারপরও নিজেদের সক্ষমতাকে প্রমাণ করে শেখ হাসিনা এই সেতু নির্মাণ করেছেন। অনেকেই বলেন, এই সেতুতে এত খরচ কীভাবে হয়েছে! কিন্তু সমগ্র পৃথিবীতে ১০০ বছেরর যে হিসাব হয়, স্বর্ণের হিসাবে, পদ্মা সেতুতে তার থেকেও খরচ কম হয়েছে। এছাড়া আনুপাতিক হারে হিসাব করলেও দেখা যায় অতীতের যে কোনো সময়ে যে কোনো নির্মাণের তুলনায় পদ্মা সেতুতে খরচ কম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সেতুতে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় করেছেন। সেমিনারে মুখ্য আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ড. আবুল বারাকাত।
তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পদ্মা সেতু চালু হওয়ার ৩০ বছরের মধ্যেই এর নির্মাণ ব্যয় উঠে আসবে। সেতু চালু হওয়ার ৪০তম বছরে নিট ক্যাশ ফ্লো ১০ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে। আর ১০০তম বছরে তা ছাড়িয়ে যাবে ২ লাখ কোটি টাকা। এছাড়া এই সেতুর ফলে শুধু দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চল নয়, উন্নত কানেক্টিভিটি সমগ্র অর্থনীতির চেহারা আমূল পাল্টে দেবে। আগামী ৫ বছরের মধ্যে, অর্থাৎ ২০২৭ সালে আমাদের জিডিপি ৯ দশমিক ৫২ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে শুধু পদ্মা সেতুর কারণে। বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. খান মাহমুদ আমানত এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক পরিচালক জামাল উদ্দিন আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাহাব উদ্দিন চুপ্পু।



 

Show all comments
  • jack ali ২৩ জুন, ২০২২, ৬:১৯ পিএম says : 0
    সত্যি কথা বললেই আপনাদের গায়ে লাগে কারন আপনারা তো প্রচন্ড দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ টাকে ধ্বংস করে দিয়েছেন দুর্নীতি করতে করতে মানুষ হত্যা মানুষ গুম মিথ্যা কেস দিয়ে মানুষকে জেলের মধ্যে পুরে রেখেছেন আপনারা বছরের পর বছর চাঁদাবাজরা সারা বাংলাদেশ থেকে প্রায় হাজার কোটি চাঁদাবাজি করে প্রতিদিন মানুষের পরে আপনারা অত্যাচার করছেন এই অত্যাচার আর সহ্য করা যাবে না কিছু একটা করতে হবে এখন দেশটাকে আবার স্বাধীন করতে হবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তথ্যমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন