Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

নাটোরে বিভিন্ন আয়োজনে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের আনন্দ উদযাপন

নাটোর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২২, ৪:১৭ পিএম

নাটোরে বিভিন্ন আয়োজনে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের আনন্দ উদযাপন করা হয়েছে। নিজস্ব অর্থায়নে স্বপ্নের পদ্মা সেতু বাস্তবে রুপ নেয়ায় শনিবার উদ্বোধন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই আনন্দে সারা দেশের মত উত্তরাঞ্চলের জেলা শহর নাটোরেও উদযাপিত হয়েছে এই উৎসব। এ উপলক্ষে সকাল ৯ টায জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহরের কানাইখালী মাঠ থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা পরিষদের অনিমা চৌধুরী অডিটোরিয়াম প্রাঙ্গনে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে অনিমা চৌধুরী অডিটোরিয়ামে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান, নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি সহ জেলা পর্যায়ের সরকারী কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, ছাত্র, শিক্ষক সহ আপামর জনসাধারন।

এছাড়াও সকালে জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে শহরের কাঁদিভিটাস্থ দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করা হয়।



 

Show all comments
  • jack ali ২৫ জুন, ২০২২, ৫:২১ পিএম says : 0
    তারা কি জনগণের রক্ত পানি করে ট্যাক্সের টাকা খরচ করে লক্ষ লক্ষ লোক জড়ো করে উদ্বোধন করে আমাদের দেশের সরকার তারা জানে না কিভাবে দেশের উন্নতি করতে হয় আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়েছে যারা শিক্ষিত হয়ে বের হয় তারা কিছুই করতে পারো না তারা সমাজ এবং পরিবারের বোঝা বিদেশের পরে নির্ভরশীল করে রেখেছে আমাদের দেশের সরকার কারণ তাদের কাছ থেকে কাজ করালে যদি এক লক্ষ টাকা দিয়ে কোন কাজ করতে হয় তখন তারা নেবে 10 লক্ষ টাকা এর মধ্যে 9 লক্ষ টাকা তারা মেরে দিবে সরকার এবং পদ্মা সেতুর ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে 11 হাজার কোটি টাকার পদ্মা সেতু 30 হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়েছে আবার উদ্বোধন করতে কত হাজার কোটি টাকা খরচ হয়েছে সেটা তারাই জানে এবং কেয়ামতের দিন আল্লাহ বলে দিবে আল্লাহর গজব পড়বে তোমাদের পরে মানুষ বন্যায় ধ্বংস হয়ে গেছে সেদিকে তাদের কোন দায়িত্ব জ্ঞান নাই তারা আনন্দ ফুর্তি করছে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ