Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ মুহাররম ১৪৪৪

পদ্মা সেতু পাড় হয়ে আসা পর্যটকদের বরন করতে কুয়াকাটা সেজেছে বর্নিল সাজে

পটুয়াখালী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০২২, ৫:৪৬ পিএম | আপডেট : ৯:০২ পিএম, ২৫ জুন, ২০২২

বহূল প্রতিক্ষীত পদ্মা সেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর স্বপ্নের দুয়ার খুলে গেল আজ।এ দিকে বাংলাদেশের সর্বদক্ষিনে বঙ্গোপসাগরের কোলঘেসা সাগরকন্যা পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় প্রথমবারের মত ফেরীবিহীন নির্ভিঘেœ সড়ক পথে আসা পর্যটকদের বরন করতে সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে স্মরনীয় রাখার পাশাপাশি পর্যটকদের বরন করতে বর্ণিল আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে কুয়াকাটার প্রবেশপথ মহাসড়ক লাগোয়া পর্যটন হলিডে-হোমস থেকে সৈকতের জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত রাস্তা।

এদিক পর্যটন কেন্দ্রে কুয়াকাটার পর্যটকদের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ট্যুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক হাসনাইন পারেভজ জানান,পদ¥া সেতুর উদ্বোধনের ফলে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় ট্যুরিস্টদের আগমন কয়েকগুন বৃদ্ধি পাবে।বর্ষা মৌসুম সহ দূর্যোগপূর্ন আবহাওয়া থাকা সত্বেও শুধূমাত্র পদ্মা সেতুর উদ্বোধন হয়ে যাওয়ায় দেশের বিভিন্নজেলা থেকে আসন্ন কোরবানী উপলক্ষে কুয়াকাটার অধিকাংশ প্রথম শ্রেনীর হোটেল মোটেল ,গেষ্ট হাউজ গুলির রুম বুকিং সমাপ্তির পথে।ট্যুরিস্টদের নিরাপত্তার পাশাপাশি ট্যুরিস্টদের সেবার কাজে নিয়োজিত বিভিন্ন স্টেক হোল্ডারদের নিয়ে আমরা একাধিক বৈঠক করেছি। এদের মধ্যে ক্যামেরা ম্যান,ভ্যান চালক,মোটর সাইকেল চালক,সীবীচের ছাতা ,টিউব ব্যবসা সহ খাবার হোটেল এবং আবাসিক হোটেলের মালিক ম্যানেজাররাও রয়েছেন।আমরা সীবীচে ট্যুরিস্টদের নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষনিক টহল সহ মাইকিং এর ব্যবস্থা চালু রেখেছি। যেহেতু এখন পদ্মা সেতু চালু হয়ে গেছে শুধূ মাত্র সপ্তাহের বন্ধের দিন নয় প্রতিদিনই এখন ট্যুরিস্ট থাকবে কুয়াকাটায় যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হয়ে যাওয়ার জন্য।

কুয়াকাটার পর্যটকদের পছন্দের কয়েকটি প্রথম শ্রেনীর হোটেল মোটেল রিসোর্ট এর মধ্যে সিকদার রিসোর্ট ও ওশানভিউ অন্যতম। সিকদার রিসোর্টের ম্যানেজার মো: আলআমীন আজ বিকেল তিনটায় জানান,পদ্মা সেতুর উদ্বোধনোর পড়ই এই দূর্যোগপূর্ন আবহাওয়ার মধ্যে অনাকাংখিত ভাবে আগামী ২৭,২৮ ২৯ জুনের জন্য ১০ টি রুমবুক হয়ে গেছে। তিনি আরোও জানান পদ্মা সেতরু উদ্বোধন উপলক্ষে কুয়াকাটায় আসা পর্যটকদের সিকদার গ্রুপের হোটেল মোটেল ভিলা ও রিসোর্টে ৫০ ভাগ ছাড় ঘোষনা করা হয়েছে।

কুয়াকাটা ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশনের(টোয়াক) সভাপতি রুমান ইমতিয়াজ তুষার জানান,সূর্যোদয় আর সূর্যাস্তের বেলা ভূমি কুয়াকাটায় এখন যে পরিমান দেশীয় পর্যটকের আগমন ঘটে আজ ২৫ জুনের পর তা প্রায় দ্বিগুন হবার সম্ভবনা রয়েছে। কারন হিসেবে তিনি জানান,ঢাকা থেকে সড়ক পথে এত কম দুরের আ্র কোন আকর্ষনীয় পর্যটন স্পট নেই। মাত্র সাড়ে চার থেকে সাড়ে পাচ ঘন্টায় ঢাকা থেকে মানুষ কুয়াকাটায় পৌছে যাবে। তিনি বলেন বৃহস্পতিবার বিকেলে রওয়ানা হয়ে রাত ৯ টা ১০টার মধ্যে পর্যটকরা কুয়াকাটায় পৌছবে। শুক্র,শনিবার থেকে রবিবার সকালে গিয়ে ঢাকায় আবার অফিস করতে পারবে। দ্বিগুন প্রায় পর্যটকের কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যে টোয়াক সদস্যরা নতুন নতুন ট্যুর অপারেশনের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। বিশেষ করে বেসরকারি পর্যায়ে সীক্রুজ সেবা চালু করার চুড়ান্ত পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে। চৌধুরী গ্রুপ নামে একটি প্রতিষ্ঠান প্রাথমিকভাবে দুটি জাহাজে এ সীক্রুজ পরিচালনা করবেন বলে জানান তিনি।

কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র মো: অনোয়র হাওলাদার বলেন ,পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ফলে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় পর্যটকের সংখ্যা কয়েকগুন বৃদ্বি পাবে।পদ্মা সেতুর উদে¦াধনের পাশাপাশি পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় আসা পর্যটকদের স্বাগত জানাতে আমরা কুয়াকাটাবাসী সর্বধরনের প্রস্তুতি গ্রহন করেছি। পর্যটন স্পট গুলি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি পর্যটকদের নিরাপত্তার জন্য সবধরনের কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। এখন পর্যটকদের সংখ্যা অনেক পর্যটকদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে পৌরসভা ভবন থেকে ঝাউবাগান পর্যন্ত ৪০ টি সিসি ক্যামেরা লাগানোর কাজ চলছে।পর্যটকদের নিরাপদে আসা যাওয়ার জন্য তুলাতলীতে ২৬ কোটিটাকা ব্যায়ে বাসটার্মিনালের কাজ চলছে।পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় সারাদেশের পর্যটকদের সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা সহ যাবতীয় সুবিধাদি দেয়ার বিষয়ে তারা কাজ করছেন বলে তিনি জানান ্



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ