Inqilab Logo

রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

অবৈধভাবে হল সংসদের রুমে ছাত্রলীগ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২২, ৮:২৩ পিএম

অবৈধভাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সলিমুল্লাহ মুসলিম হল সংসদের রুম দখল করেছে ছাত্রলীগ। দখলকৃত রুমকে হল ছাত্রলীগের কার্যালয় ঘোষণা দিয়ে নিয়মিত কর্মসূচি পালন করছে তারা।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে হল সংসদের জন্য একটি রুম বরাদ্দ দেয়া হয়। যেখানে হল সংসদের যাবতীয় কার্যাবলী সম্পাদন করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের ওই রুমটা ছাত্রলীগের কার্যালয়ে পরিণত হতে দেখা যায়। সেখানে হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা নিয়মিত রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হল ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর শিকদার বলেন, হল প্রশাসনের অনুমতি নিয়েই আমরা এটা ব্যবহার করছি। এটা এখন থেকে হল ছাত্রলীগের কার্যালয়।

তবে অনুমতি নেয়ার বিষয়টি জানে না হল প্রশাসন। হলের সিনিয়র অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার মোহাম্মদ নুরুজ্জামান বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। ওনারা হল প্রভোস্টের সাথে কীভাবে কি করেছে তা ওনিই ভালো জানেন। তবে হল প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মো. মজিবুর রহমানকে এ বিষয়ে তিনদিন ধরে ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

হল সংসদের রুম ছাত্রলীগ বা অন্যান্য ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠন ব্যাবহার করতে পারে কিনা জানতে চাইলে প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির আহ্বায়ক ও বিজয় একাত্তর হলের প্রভোস্ট প্রফেসর আব্দুল বাছির বলেন, হল প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে যে কোনো ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠন তা সাময়িকভাবে ব্যবহার করতে পারে। তবে তা কোনো একক ছাত্র সংগঠনের কার্যালয় ঘোষণা করা যাবে না।

এদিকে হল সংসদের সাবেক সিএস জুলিয়াস সিজার তালুকদার বলেন, হল সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ায় আমরা ওই রুমটা ব্যবহার করতে পারব কি না তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিলে গত কয়েকমাস ধরে আমরা ওই রুমটা আর ব্যবহার করছি না। হল প্রশাসন থেকে আমাদের জানানো হয়েছে এই রুমের বিষয়ে আমাদের সাথে নিয়ে একটা সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। কিন্তু এখন আমাদের কিছুই না জানিয়ে রুমটা ছাত্রলীগের কার্যালয়ে পরিণত করা হয়েছে, যা খুবই ন্যক্কারজনক। আসলে তারা অনুমতি নিয়েছে কিনা তা জানার জন্য আমরা হল প্রভোস্টকে অনেকবার কল দিয়েও পায়নি। সিজার আরো বলেন, হল সংসদ হল প্রশাসনের একটা অর্গান। হল সংসদের রুম অন্য কোনো ছাত্র সংগঠনকে দেয়ার অধিকার রাখে না হল প্রশাসন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ