Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪

পঞ্চগড়ে শিক্ষকের বেতন নির্ধারণের নামে অর্থ আদায়ের অভিযোগ

পঞ্চগড় জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০২২, ১২:০৩ এএম

পঞ্চগড়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত সহকারি শিক্ষক ১৩তম গ্রেড নির্ধারিত হওয়ায় শিক্ষক ভিত্তিক ১৩তম গ্রেডের বকেয়া বেতন নির্ধারণের নাম করে অর্থ আদায়ের অভিযোগ উঠেছে শিক্ষা অফিসে সংযুক্তি নেয়া রাসেল, মকবুলার রহমান, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মানিকসহ কয়েকজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে। তবে অর্থের বিষয়টি শিক্ষকরা অস্বীকার করেছেন।
অফিস সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলায় ১৬৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রয়েছে। শিক্ষকদের দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে সরকার গত বছর ১৩ গ্রেডে উচ্চ ধাপে বেতন উন্নীত করার আদেশ জারি করেন। এ নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় এক আদেশে বলা হয়, যে সব শিক্ষকের বর্তমান বেতন ১৩ গ্রেডের নিম্নধাপের চেয়ে বেশি তাদের বেতন উন্নীত স্কেলে নির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত প্রদান করা হয়। সম্প্রতি উপজেলায় ৩১০ জন শিক্ষক আবেদন করেছেন। সেই কাজে সহায়তার জন্য উপজেলা শিক্ষা অফিসে বিদ্যালয় থেকে ২ জুন থেকে ২০ জুন পর্যন্ত কোন প্রকার টিএডিএ ছাড়া ১১ জন শিক্ষককে স্থানান্তর করা হয়েছে। এই সুযোগে তারা অফিস খরচের নামে শিক্ষকদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করছেন। তারা প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের কাছ থেকে বকেয়া বেতনের দশ শতাংশ হারে অর্থ আদায় করছেন। বিষয়টি নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে অন্তত ৯ জন সহকারী শিক্ষক জানান, গত পনেরদিন ধরে শিক্ষক মকবুলার, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মানিক, রাসেলসহ কয়েকজন তাদের বকেয়া বেতনের দশ শতাংশ হারে অর্থ নিচ্ছেন। অর্থ না দিলে ফাইল জমা নিচ্ছেন না। তাদের নয়জনের মধ্যে ৬০০ থেকে ১ হাজার ৯০০ টাকা পর্যন্ত দিয়েছেন।
তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মানিক জানান, আমরা শিক্ষকদের কাছে কোন প্রকার অর্থ আদায় করিনি। অফিস আছে আপনি অফিসের সাথে কথা বলেন, আমাকে কেন ফোন দিয়েছেন।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোসলেম উদ্দিন শাহ্ জানান, বিষয়টি আমার জানা নাই। এ পর্যন্ত কোন শিক্ষক অভিযোগও করেননি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন