Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

ঘুম ভাঙলেই সব ভুলে যান!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ জুন, ২০২২, ১২:০০ এএম

গৃহবধূ ক্লোয়ি বার্নার্ড। বয়স ২৯ বছর হলেও মুহূর্তে তা কমে প্রায়ই ৬ বছরের বালিকা হয়ে যান। অবশ্য মনে মনে! এক বিরল রোগের শিকার ক্লোয়ি বর্তমান বয়স থেকে চোখের পলকে ২৩ বছর পিছিয়ে যেতে পারেন। তখন তিনি অন্য মানুষ।

ক্লোয়ি ৯ বছরের পুরনো সঙ্গীকে একেবারেই চিনতে পারেন না। ঘরের মধ্যে তাকে দেখলে ভয়ে চিৎকার করে ওঠেন। কারণ ‘শিশু ক্লোয়ি’র কাছে তার হবু স্বামী তখন দাগী আসামি। তাকে নিজের সম্ভাব্য অপহরণকারী ভেবে তিনি ভীষণ ভয় পান। এই রোগ এবং উপসর্গ বিরল হলেও এর নামের সঙ্গে অনেকেই পরিচিত।
স্মৃতিবিভ্রমের অসুস্থতা অ্যামেনশিয়ায় আক্রান্ত ক্লোয়ি। তবে তার অ্যামেনশিয়ার ধরণ ও উপসর্গগুলোও আলাদা। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ক্লোয়ির এই রোগের নাম অ্যামেনশিয়া ফিট। এই রোগে স্মৃতিভ্রংশের পাশাপাশি একটি সম্পূর্ণ কাল্পনিক জগৎ তৈরি করে নেন রোগী।

চার বছর আগে প্রথম এই রোগের কথা বুঝতে পারে ক্লোয়ির পরিবার। বাবা এবং প্রেমিক জেমসকে নিয়ে ২৫ বছরের ক্লোয়ি একটি রেস্তরাঁয় খেতে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে গিয়ে প্রেমিককে চিনতে পারছিলেন না। পরে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ভেবেছিলেন, তার বাবা তাকে অচেনা এক পুরুষের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন! শেষে বাড়িতে মাকে ফোন করে তার ভুল ভাঙে। মা তাকে জানান, জেমস তারই পাঁচ বছরের পুরনো প্রেমিক।
ঘুম ভাঙলে দেখা যায় আগের কথা মনেই নেই ক্লোয়ির। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, সাধারণত স্মৃতিভ্রমের রোগে সাধারণত বছরে কয়েক বার আক্রান্ত হন রোগী। কিন্তু ক্লোয়ির রোগ তাকে এমন পরিস্থিতিতে ফেলে প্রতি মাসে অন্তত দু’বার করে। সূত্র : এবিপি, নিউ ইয়র্ক পোস্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ