Inqilab Logo

সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

বিশ্ব মূল্যস্ফীতির বোঝা জনগণের কাঁধে চাপাইনি : ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ১২:০৫ এএম

পাকিস্তান তাহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) চেয়ারপারসন ইমরান খান বলেছেন যে, পিটিআই আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের কঠোর শর্ত, দুর্বল অর্থনীতি এবং কোভিড-১৯ সত্ত্বেও বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির বোঝা জনগণের কাছে স্থানান্তরিত করেনি। তিনি বলেন, ‘অভিজ্ঞ চোরদের’ অধীনে দেশের অর্থনীতির ভবিষ্যত বর্তমানের মতো অন্ধকার হতে চলেছে।
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যটি গতকাল একটি বৈঠকে এসেছে যেখানে দলটি দেশের সামগ্রিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি, জনগণের ওপর মূল্যস্ফীতির প্রভাব এবং জাতীয় পরিষদে সরকারি মিত্রদের বক্তৃতা নিয়ে আলোচনা করেছে। বৈঠকে ২ জুলাই ফেডারেল রাজধানীতে মুদ্রাস্ফীতিবিরোধী সমাবেশ করার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।
বৈঠকে ইমরান দলীয় কর্মকর্তাদের মুদ্রাস্ফীতি ইস্যুতে জনগণের মুখপাত্র হওয়ার নির্দেশ দেন। তিনি আরো যোগ করেছেন যে, বর্তমান সরকারের ‘চোররা’ ‘নিজেদের স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য জনগণকে সবচেয়ে খারাপ দুর্ভোগ দিয়েছে’।
‘অর্থনীতির ভবিষ্যত এ অভিজ্ঞ চোরদের কারণে অন্ধকার বর্তমানের মতো অন্ধকার’, ইমরান বলেন, তার সরকার সতর্ক করেছিল যে, এত কঠোর পরিশ্রমে নির্মিত অর্থনীতি রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার ধাক্কা সহ্য করতে সক্ষম হবে না।
ইমরান বলেন যে. ‘অকার্যকর, অযোগ্য, অসৎ এবং কুখ্যাত গোষ্ঠী’ সঠিকভাবে প্রস্তুতি নেয়নি এবং তাদের চুরি বাঁচাতে তড়িঘড়ি করে ক্ষমতা দখলের ষড়যন্ত্র করেছিল।
প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন যে, পিটিআই যখন ক্ষমতায় এসেছিল, অর্থনীতি দেউলিয়া হওয়ার দ্বারপ্রান্তে ছিল, কিন্তু বাধা সত্ত্বেও এটি সাধারণ মানুষের কাছে বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতির বোঝা চাপিয়ে দেয়নি। সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন