Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

আগামী বছর জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন আয়োজন করবে জম্মু ও কাশ্মীর

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ১:০১ পিএম

আগামী জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন আয়োজিত হবে জম্মু ও কাশ্মীরে। মোদি সরকার সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহার করার পরে এটি জম্মু ও কাশ্মীরে অনুষ্ঠিত প্রথম বড় আন্তর্জাতিক শীর্ষ সম্মেলন হবে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ১ ডিসেম্বর, ২০২২ থেকে জি-২০ সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য শীর্ষ নেতাদের আহ্বান করবে। -এনডিটিভি

জি-২০ বিশ্বের নেতৃস্থানীয় অর্থনীতির ১৯টি দেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নকে একত্রিত করেছে, যার সদস্যরা বিশ্বব্যাপী জিডিপির ৮০ শতাংশের বেশি, বৈশ্বিক বাণিজ্যের ৭৫ শতাংশ এবং বিশ্ব জনসংখ্যার ৬০ শতাংশের অধিকারী। বিশ্বের প্রধান অর্থনীতির দেশগুলিকে একত্রিত করার একটি প্রভাবশালী ফোরাম হিসেবে জি-২০ তাদের ২০২৩ সালের শীর্ষ সম্মেলন করবে জম্মু ও কাশ্মীরে।ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল সরকার সম্মেলনটির সামগ্রিক সমন্বয়ের জন্য একটি পাঁচ সদস্যের উচ্চ স্তরের কমিটি গঠন করেছে। .
গত বছরের সেপ্টেম্বরে, কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী পীযূষ গোয়ালকে জি-২০-এর জন্য ভারতের সমন্বয়ক হিসাবে নিযুক্ত করা হয়।

একটি সরকারী আদেশ অনুসারে, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের আবাসন ও নগর উন্নয়ন বিভাগের প্রধান সচিব কমিটির চেয়ারম্যান হবেন, যা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৪ জুন জানান। জম্মু ও কাশ্মীরের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জি-২০ মিটিংগুলির সামগ্রিক সমন্বয়ের জন্য একটি কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সাধারণ প্রশাসন বিভাগের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি মনোজ কুমার দ্বিবেদী কর্তৃক জারি করা আদেশে বলা হয়েছে, কমিটির সদস্যরা হলেন কমিশনার সচিব(পরিবহন), প্রশাসনিক সচিব (পর্যটন), প্রশাসনিক সচিব (আতিথেয়তা ও প্রটোকল) এবং প্রশাসনিক সচিব (সংস্কৃতি)। প্রধানমন্ত্রী মোদি ২০১৪ সাল থেকে জি২০ শীর্ষ সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন৷ ১৯৯৯ সালে জি২০ প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই সদস্য ছিল ভারত৷



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন