Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

নিকলীতে বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে মাদ্রাসা

নিকলী (কিশোরগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ১:০৩ পিএম

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার প্রত্যন্ত হাওর অঞ্চল সিংপুর ইউনিয়নের ডুবি শরিয়ত উল্লাহ দাখিল মাদ্রাসাটি বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। পানি প্রতিষ্ঠানের ভেতরে প্রবেশ করেছে । শ্রেণি কক্ষের ভেতর প্রায় দুই ফুটপরিমান পানি । বন্যার শুরুতেই এ মাদ্রাসায় পানি ঊঠে । বর্তমানে মাদ্রাসার পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে । ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি । ক্ষয় ক্ষতির পরিমান জানতে এ বিষয়ে মোঠফোনে কথা হয় মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আমিনুল ইসলামের সাথে তিনি বলেন, বন্যায় আমাদের মাদ্রসার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে টিন সেট দুটি ঘর ভিট ভেঙ্গে গেছে । মাস্রাসার মাঠ পানির ঢেঊয়ে ভেঙ্গে যাচ্ছে এবং তিনটি টয়লেট পানির নিছে তলিয়ে গেছে । এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতির পরিমান জানিয়ে লিখিত আবেদন করেছি । এ ছাড়াও উপজেলার কারপাশা , গোরাদিঘা , সিংপুর ও ভাটিবরাটিয়া , ছাতিরচর , গুরুই গ্রাম গুলো । বন্যা শুরু হওয়ার প্রথম দিকেই এই গ্রামের বেশিরভাগ বাড়িঘরে পানি ওঠা শুরু করে। বর্তমানে উপজেলার ৩৯ গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে । প্রায় প্রায় ৩০০ টি পরিবারের ভিটেমাটি পানির নিচে। এই অবস্থায় কেউ কেউ গরু-বাছুর নিয়ে আশপাশের উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন। অনেকে পানি উঠে যাওয়া ঘরের ভেতরই উঁচু মাচান তৈরি করে এক প্রকার বন্দি হয়েই দিন কাটাচ্ছেন।নিকলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: আবু হাসান মোবাইল ফোনে ইনকিলাবকে বলেন, বন্যাদুর্গতদের সবারই খাবার অভাব। নিকলী উপজেলায় এখন পর্যন্ত সরকারিভাবে ৩০ মেট্রিক টন চাল, ১ লাখ ৫০ হাজার টাকার শুকনো খাবার বন্যা দুর্গত এলাকায় প্রদান করা হয়েছে । এছাড়াও নগদ ১ লাখ ২০ হাজার টাকা পাঠানো হয়েছে। এসব স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্যা পরিস্থিতি


আরও
আরও পড়ুন