Inqilab Logo

শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারী পরিষদের মানববন্ধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ৫:২১ পিএম | আপডেট : ৯:০৫ পিএম, ৩০ জুন, ২০২২

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) অভিন্ন নীতিমালার প্রতিবাদসহ ১১ দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা। বুধবার ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ০১ নং ভবনের সামনে কর্মচারী পরিষদের ব্যানারে সকল দপ্তরে কর্মকত কর্মচারীরা এ মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ইউজিসি স্থায়ী বেতন কমিশন গঠন পূর্বক বঙ্গবন্ধু ঘোষিত ১৯৭৩ সালের ১০ ধাপে নবম পে স্কেল বাস্তবায়ন, কর্মচারী নিয়োগের ক্ষেত্রে জেলা কোটা অনুসরণ, পোষ্য কোটা নিশ্চিতকরণসহ ১১ দফা দাবি ইউজিসিকে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ইউজিসি সে দাবিগুলো না মেনে, কারও সঙ্গে আলোচনা না করে তাদের নিজেদের বানানো অভিন্ন নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে যাচ্ছে। যেটা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল কর্মচারীর জন্য হুমকি। এ কারণে ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য সারা দেশে কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। এ সব দাবি বাস্তবায়ন না হলে ভবিষ্যতে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তারা।
মানববন্ধনে সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল গফুর বলেন, আমরা কর্মচারীরা মানবেতর জীবনযাপন করি। রাষ্ট্রের বোঝা মাথায় নিয়ে সকাল-সন্ধ্যা কাজ করি। ১১ দফা দাবি মেনে নিয়ে চলার পথ সুগম করার জন্য ইউজিসি ও সরকারের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেন অন্য বক্তারা।
সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুহাম্মদ মশিউর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, অর্থনৈতিক ক্ষতি এবং সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধিসহ আমারা বৈষম্যের শিকার তাই ন্যায্য দাবি নিয়ে দাঁড়িয়েছি। এ সমস্যার পরিত্রাণ চাই।
সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী তার বক্তব্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) কর্মচারীদের সাথে আলোচনার নামে তালবাহনা করে। তাদের মনগড়া নীতিমালা বাস্তবায়ন করে আমাদের উপর চাপিয়েদিতে চায়। নিশ্চয়ই তাদের অসৎ উদ্দেশ্য আছে কিন্তু আমরা তা বাস্তবায়ন হতে দিব না। ইস্পাত কঠিন আন্দোলনের মাধ্যমে আমাদের দাবী বাস্তবায়ন করবো। ইনশাআল্লাহ্
মানববন্ধন কর্মসূচিতে সকল কর্মচারী অংশ নেন। এ সময় প্রত্যেকেই তাদের বক্তব্যে বিভিন্ন বৈষম্যের কথা তুলে ধরেন।
মানববন্ধন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল গফুর, সিনিয়র সহ-সভাপতি, মুহাম্মদ মশিউর রহমান, সহ-সভাপতি মোঃ আব্দুুল আউয়াল, সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী, যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক শায়েখ আহমদ, দপ্তর সম্পাদক ওমর ফারুক রাসেল, সহ দপ্তর সম্পাদক মোঃ জাকারিয়া মাছুদ, অর্থ সম্পাদক মাছুদ রানা, প্রচার সম্পাদক মোঃ ওয়াজ উদ্দিন বাবু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সাখাওয়াত, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ দেলওয়ার হোসাইন, কার্য নির্বাহী সদস্য মোঃ কাউছার, অমিতাভ বিশ্বাস, মোঃ শফিকুল ইসলাম, কর্মচারী ইব্রাহিম হোসাইন, আশরাফুল আলম, শিবলী শাহরিয়ার, সুরাইয়া, রুবেল ফরাজী, শরিফুল ইসলাম সোহাগ, মোঃ হাবিবুর রহমান, সুজন মন্ডল, মোঃ লিখন হোসাইন, মোঃ ইকবাল, আল আমিন, সৌরভ, রুবেল হোসেন,ফজলুল হক প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ