Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

এশিয়ান ট্র্যাকে চরম ব্যর্থ সাইক্লিষ্টরা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২২, ৭:৩৭ পিএম

সদ্য সমাপ্ত এশিয়ান ট্র্যাক চ্যাম্পিয়নশিপে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন বাংলাদেশের সাইক্লিষ্টরা। গত ১৮ থেকে ২২ জুন পর্যন্ত ভারতের দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয় এশিয়ান ট্র্যাক সাইক্লিং চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা। এ আসরে পুরুষদের ইন্ডিভিজুয়াল পারস্যুট ইভেন্টে হতাশাজনক পারফরম্যান্স করে বাংলাদেশের খন্দকার মাহবুব হোসেন ২৪৬ পয়েন্ট নিয়ে ১১ জনের মধ্যে ১১তম হন। এই ইভেন্টের নারী বিভাগে বাংলাদেশের রিতা খাতুন ৩৬০ পয়েন্ট নিয়ে সাতজনের মধ্যে সবার শেষে জায়গা পান। টিম স্প্রিন্টে ১৮০ পয়েন্ট নিয়ে সাত দেশের মধ্যে বাংলাদেশের জায়গা হয় সপ্তমস্থানে। এই দলে ছিলেন মুক্তাদুর আল হাসান, ফয়সাল বিশ^াস ও খন্দকার মাহবুব হোসেন। নারীদের এই ইভেন্টেও ১৯৫ পয়েন্ট নিয়ে ছয় দেশের মধ্যে ষষ্ঠ হয় বাংলাদেশ। দলে ছিলেন সমাপ্তি বিশ^াস, তিথি বিশ^াস ও ¯িœগ্ধা আক্তার। নারীদের স্প্রিন্টে বাংলাদেশের তারকা সাইক্লিষ্ট সমাপ্তি বিশ^াস ২১০ পয়েন্ট নিয়ে ১৪ জনের মধ্যে ১৩তম এবং ১৯২ পয়েন্ট নিয়ে তিথি বিশ^াস সবার শেষে জায়গা পান।

লাল-সবুজরা ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করে দলগত পারস্যুট ইভেন্টেও। দলগত পারস্যুটে ১৯৫ পয়েন্ট নিয়ে ছয় দেশের মধ্যে ষষ্ঠ হয় বাংলাদেশ। নারীদের এই ইভেন্টে ২১০ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ দেশের মধ্যে পঞ্চমস্থান পায় বাংলাদেশ। পুরুষদের স্প্রিন্টে ফয়সাল হোসেন বিশ^াস ১৫৬ পয়েন্ট নিয়ে ১৬তম এবং মুক্তাদুর আল হাসান ১৩২ পয়েন্ট নিয়ে সবার ১৮ জনের মধ্যে সবার শেষে জায়গা পান। পুরুষদের টাইম ট্রায়ালে খন্দকার মাহবুব হোসেন ২৭০ পয়েন্ট নিয়ে ১০ জনের মধ্যে দশম হন। মেয়েদের এই ইভেন্টে অংশই নেননি সমাপ্তি বিশ^াস ও তিথি বিশ^াস। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সাইক্লিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক তাহেরুল আলম চৌধুরী বলেন, ‘যখন ১২ জন নেওয়ার জন্য নাম এন্ট্রি করেছিলাম, তখন এই ইভেন্টে তাদের নাম দেওয়া হয়েছিল। তাছাড়া ইভেন্টের আগের দিন ওই নাম আর উত্তোলন করানো হয়নি। তাই তাদের নাম রয়ে গেছে।’

চরম ব্যর্থতার পর দেশে ফিরে তারকা নারী সাইক্লিষ্ট সমাপ্তি বিশ^াস বৃহস্পতিবার বলেন,‘এশিয়ান ট্র্যাক চ্যাম্পিয়নশিপ বলেই আমরা তেমন কিছু করতে পারিনি। তবে এটি এশিয়ান কাপ হতো, তাহলে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতো।’ তিনি যোগ করেন, ‘আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলার জন্য আমাদের যে সব যন্ত্রপাতির প্রয়োজন, তা নেই। অন্য দেশের সেরাদের সঙ্গে আমাদের আনুপাতিক হার ১২০:১০১।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন