Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

টুথব্রাশ এবং ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ

| প্রকাশের সময় : ১ জুলাই, ২০২২, ১২:১১ এএম

আপনার টুথব্রাশে ই-কোলাই, স্টেফাইলোকক্কাই সহ মিলিয়ন ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে। আপনার মুখের অভ্যন্তরভাগও ব্যাকটেরিয়া দ্বারা পরিপূর্ণ। এই ব্যাকটেরিয়াগুলিকে বলে নরমাল ফ্লোরা অর্থাৎ এরা এখানে স্বাভাবিক নিয়মেই থাকে এবং সুস্থ মানুষের কোন ক্ষতির কারন হয় না। মুখে ব্যাকটেরিয়ার সংখ্যা এবং ধরনের একটি ভারসাম্য সব সময় বজায় থাকে। তবে এন্টিবায়োটিক সহ অন্যান্য ঔষধ সেবন এবং বিভিন্ন রোগের কারণে মুখে ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্য নষ্ট হয়ে গেলে আপনি খাবার গ্রহণের সময় যথাযথভাবে স্বাদ পাবেন না। আবার খেতেও ইচ্ছা করবে না। এই সময়ে মুখের ভিতরে ব্যকটেরিয়া ও ছত্রাক আক্রমন বেড়ে যায়। শুরু হয় জালাপোড়া ও ব্যথা বেদনা। যা ছড়িয়ে পরতে পারে গাম, জিহবা, গলা, খাদ্যনালী সহ আরও বহু দুর।

টুথব্রাশের যথাযথ পরিচর্যা করলে তা আপনার মুখের কোনো ক্ষতি করবে না। টুথব্রাশ হোল্ডারে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া থাকে। তাই টুথব্রাশ হোল্ডার সব সময় পরিস্কার রাখতে হবে। আবার পরিবারের সবার টুথব্রাশ এক সাথে রাখাও ঠিক না। সবার টুথব্রাশ আলাদা আলাদা ভাবে রাখা উচিত। কারণ করোনা ভাইরাস সংক্রমনসহ অন্যান্য ভাইরাস এবং ছত্রাক টুথব্রাশের মাধ্যমেও বিস্তার লাভ করতে পারে।

দাঁত ব্রাশ করার পর টুথব্রাশ একটি নির্দিষ্ট নিয়মে পরিস্কার করে তবেই যথাস্থানে রাখতে হবে। দাঁত ব্রাশ করার পর টুথব্রাশ সব সময় শুস্ক স্থানে রাখতে হবে। অন্যমনস্ক হয়ে কখনোই টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে টুথব্রাশের খোঁচা লেগে আপনার মুখের অভ্যন্তরের নরম ঝিল্লিতে বা অন্যান্য কোষ কলায় আলসার বা ঘাঁ সৃষ্টি হতে পারে।

শিশুদের ক্ষেত্রে সব সময় নরম ও ছোট বেবি টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন। শিশুর প্রথম দাঁত হওয়ার পর থেকেই ব্রাশিং শুরু করতে হয়। প্রথম প্রথম নরম কাপড় আর পানি দিয়েই দাঁত ও গাম পরিস্কার করা যায়। তবে দাঁতের সব সার্ফেসই পরিস্কার করতে হয়। দিনে ২ বার ব্রাশ করাই যথেষ্ট। তবে কখনোই তা ৩ বারের বেশী নয়। শিশুরা নিজেরা ব্রাশ করলেও বড়রা অবশ্রই তা সুপারভাইজ করবেন। ভুল ব্রাশিংয়ের কারনে অনেক ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আগেই তা শোধরানোর সুযোগ থাকবে।

নিয়মিত দাঁত ব্রাশের পাশাপাশি অনেকেরই দাঁতের ফাকের জন্য ইন্টারডেন্টাল ব্যাশ ব্যবহারের প্রয়োজন দেখা দেয়।

১. মাড়ির রোগীদের ক্ষেত্রে অবশ্যই ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে।
২. দুই দাঁতের মাঝখানে পরিস্কার করার জন্য দাঁত ব্রাশ করার আগেই ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে ভুলবেন না।
৩. দুই দাঁতের ফাকে যদি খাবার বেশি পরিমানে জমে থাকে অথবা সব সময় জমে থাকে তাহলে টুথব্রাশ ব্যবহার করার পাশাপাশি ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করা উচিত।
৪. ফ্লসিংয়ের চেয়ে এই ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ অবশ্যই উত্তম।

৫. কেউ কেউ দাঁতের এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় পেলেও এটা কিন্তু প্লাক সরানোতে খুবই কার্যকর।
৬. ভিন্ন ভিন্ন সাইজের এই ব্রাশ ভিন্ন ভিন্ন সাইজের ফাঁকে ব্যবহার করতে হয়।
৭. এই ব্রাশের সাথে কখনোই টুথপেষ্ট ব্যবহার করবেন না।
৮. দিনে একবারের বেশী এটি ব্যবহারের প্রয়োজন নেই।
৯. আর ১-২ সপ্তাহ পর পরই এটি পরিতর্বন করে নিতে হবে।

১০. এটি ব্যবহারের প্রথম দিকে প্লাক সরে গিয়ে গাম থেকে রক্ত বের হতে পারে। তখন আপনি দমে গিয়ে এর ব্যবহার বন্ধ করবেন না। কয়েকদিনের মধ্যেই আপনার গাম আবার হেলদি হয়ে রক্ত পরা বন্ধ হবে। আর বন্ধ না হল অবশ্যই আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে ভুলবেন না।
১১. আকা বাকা দাঁতের চিকিৎসা করার সময় অবশ্যই টুথব্রাশের পাশাপাশি ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে।

টুথব্রাশ ব্যবহারের আগে অবশ্যই তা পানি দিয়ে ভাল ভাবে পরিস্কার করে নিবেন। তারপর টুথব্রাশে সামান্য পরিমানে টুথপেস্ট নিয়ে দাঁত ব্রাশ করবেন। টুথব্রাশে অতিরিক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করবেন না। টুথপেস্টে রাসায়নিক উপাদান এসএলএস অর্থাৎ সোডিয়াম লরিল সালফেট বিদ্যমান থাকে যা মুখে আলসার সৃষ্টি করতে পারে। তাই অতিরিক্ত টুথপেস্ট আলসার ছাড়াও আপনার মুখের জন্য বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।

সব সময় নরম ফাইবার যুক্ত একটি টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন। টুথব্রাশের ফাইবার গুলো কোন দিকে বেকে গেলে অবশ্যই টুথব্রাশ পরিবর্তন করবেন। কারণ বাঁকানো ফাইবার দিয়ে আপনার দাঁত পরিস্কার করা যাবে না। এটির বিভিন্ন দিকের ঘষায় আপনার কোষ কলায় ক্ষত তৈরী করবে। একটি টুথব্রাশ দুই মাসের বেশি ব্যবহার না করাই ভালো। কম দামের বা শক্ত টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনার দাঁতের সমস্যা সহ মাড়ির রোগ এবং দাঁত ও মাড়ি সরে যেতে পারে। আড়াআড়ি ভাবে টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনার গাম রিছেসন অর্থাৎ মাড়ি জায়গা থেকে সরে যেতে পারে। প্রয়োজনের অতিরিক্ত সময় টুথব্রাশ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করবেন না। এতে করে আপনার দাঁতের ক্ষয় ছাড়াও দাঁত শির শির করতে পারে।

ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন
ইমপ্রেস ওরাল কেয়ার
বর্ণমালা সড়ক, ইব্রাহিমপুর, ঢাকা।
মোবাইল ঃ ০১৮১৭৫২১৮৯৭
ই-মেইল ঃ [email protected]



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টুথব্রাশ এবং ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ
আরও পড়ুন