Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ১০ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

নূপুর-কীর্তি প্রকাশ্যে আনা মুসলিম সাংবাদিককে পাঠানো হল জেলে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০২২, ১০:০২ পিএম

২০১৮ সালে করা একটি টুইটের মামলায় ধৃত সাংবাদিক মোহাম্মদ জুবায়েরের জামিনের আবেদন খারিজ করল আদালত। দিল্লির মুখ্য বিচারবিভাগীর ম্যাজিস্ট্রেট স্নিগ্ধা শ্রীবাস্তব শনিবার দিল্লি পুলিশের আবেদন গ্রহণ করে খবরের সত্যতা যাচাই করার সংবাদমাধ্যম অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে।

চার বছরের পুরনো মামলার ধৃত জুবায়েরের বিরুদ্ধে শনিবারই নতুন অভিযোগ এনেছে দিল্লি পুলিশ। তার মধ্যে রয়েছে অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র এবং প্রমাণ ধ্বংস করা। সেই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিদেশি অনুদান নিয়ন্ত্রণ আইনের (ফরেন কনট্রিবিউশন রেগুলেশন অ্যাক্ট বা এফসিআরএ) ৩৫ নম্বর ধারা অমান্যেরও অভিযোগ এনেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন দিল্লি পুলিশ। অভিযোগ বিধি ভেঙে বিদেশি অর্থসাহায্য নিয়েছিলেন জুবায়ের।

জুবায়েরের ২০১৮ সালের একটি টুইটে ‘ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে’, এই অভিযোগে দিল্লি পুলিশ গত রোববার (২৬ জুন) জুবায়েরকে গ্রেফতার করেছিল। সোমবার তাকে এক দিনের জন্য পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়। ফের জেরার জন্য দিল্লি পুলিশ জুবায়েরকে হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানালে মঙ্গলবার বিচারক আরও চার দিনের পুলিশ হেফাজত মঞ্জুর করেন। সেই সময়সীমা শেষ হওয়ায় শনিবার দিল্লির একটি আদালতে জুবায়েরের তরফে জামিনের আবেদন জানিয়েছিলেন তার আইনজীবী বৃন্দা গ্রোভার।

অন্য দিকে, দিল্লি পুলিশের কৌঁসুলি জামিনের বিরোধিতা করে জুবায়েরকে ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠানোর আবেদন করেন আদালতে। তবে দিল্লি পুলিশ শনিবার আদালতকে জানিয়েছে, তদন্তের জন্য ধৃত জুবায়েরকে আর জেরা করার প্রয়োজন নেই। প্রসঙ্গত, বিজেপি নেত্রী (বর্তমানে সাসপেন্ডেড) নূপুর শর্মা যে টেলিভিশন অনুষ্ঠানে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন, তা জুবায়েরই প্রথম নেটমাধ্যমে প্রকাশ্যে আনেন। জুবায়েরের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেই একই অভিযোগে নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে অসংখ্য এফআইআর হলেও তাকে গ্রেফতার করা হবে না বলে জানিয়েছে পুলিশ। সূত্র: টাইমস নাউ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ