Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

হাওরে সড়ক নয়, এখন থেকে উড়াল সড়ক নির্মাণ করব আমরা, সুনামগঞ্জে পরিকল্পনামন্ত্রী

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২২, ৪:০৩ পিএম

বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, দুর্যোগ মোকাবিলায় মহাপরিকল্পনা রয়েছে আমাদের সরকারের। এর মধ্যে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে বন্যায় ক্ষতিগ্রহস্থদের পুনর্বাসনে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে সুনামগঞ্জের বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করে গেছেন। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য বড় প্রকল্প আসছে। প্রথমে ত্রাণ, এরপর নির্মাণ। যাদের ঘরবাড়ি ভেঙে গেছে তাদেরকে সহায়তা দেয়া হবে। এমনিতেই ভুমিহীনদের শেখ হাসিনার সরকার ঘর তৈরি করে দিচ্ছে। আরও দেয়া হবে। যা সহায়তা আসছে তা প্রয়োজনের তুলনায় কম হলেও এ মানবিক সহায়তা অব্যাহত থাকবে। ধৈর্যের সঙ্গে কাজ করতে হবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে।’
আজ রোববার (৩ জুলাই) শান্তিগঞ্জ উপজেলার পাথারিয়া ইউনিয়নে বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন পরবর্তী ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী। মন্ত্রী বলেন, সরকার হাওরে আর সড়ক নির্মাণ করবে না। প্রধানমন্ত্রী পরিষ্কার বলে দিয়েছেন যত্রতত্র আর রাস্তা নয়। এখন থেকে উড়াল সড়ক হবে। যেখানে প্রয়োজন হবে সেখানে উড়াল সড়ক করব আমরা। শেখ হাসিনার সরকার যতদিন আছে উন্নয়নে আরও আলোকিত হবে দেশ। তাই উন্নয়নের স্বার্থেই ঐক্যবদ্ধ হয়ে শেখ হাসিনার সরকারের সাথেই থাকতে হবে। মন্ত্রী আরও বলেন, আল্লাহ আমাদের সবাইকে সৃষ্টি করেছেন। তিনি বিপদ দিয়েছেন রক্ষা করবেন তিনিই।
তিনি রিজিক দিয়েছেন তবে পরিশ্রম করে সে রিজিক গ্রহণ করতে হবে। মহান আল্লাহ তাআলার দেয়া নিয়মকানুন মানতে হবে, তবেই আমাদের রক্ষা করবেন তিনি। এই বন্যার মাধ্যমে আল্লাহ আমাদের পরীক্ষা করেছেন। এই বন্যা ইনশাআল্লাহ চলে গেছে, আরও যাবে। এই বন্যায় আমাদের সরকার সামান্য কিছু সহায়তা করেছে ; আল্লাহর তুলনায় তা কিছুই না। তাই আমাদের আল্লাহর প্রতি প্রকাশ করতে হবে কৃতজ্ঞতা। ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনোয়ার উজ জামানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নূর হোসেনের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন দরগাপুর মাদ্রাসার মুহতামিম নুরুল ইসলাম খান, পৌর মেয়র নাদের বখত, পাথারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান দোলন রানী তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি তহুর আলী, মাওলানা আবদুল কাইয়ূম, শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খালেদ চৌধুরী, জয়কলস ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত সুজন, শিমুলবাক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহীনুর রহমান শাহীন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ