Inqilab Logo

সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু ২৯ আগস্ট

পাকিস্তানের আগ্রহ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২২, ৭:৫৫ পিএম

পূর্ব নির্ধারিত দিনক্ষণ অনুযায়ী আগামী ১২ আগস্ট যে নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ হচ্ছে না তা আগেই জানিয়েছিলেন সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের (সাফ) সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল। তিনি জানিয়েছিলেন অল নেপাল ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (আনফা) নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহণের কারণে আগের নির্ধারিত তারিখে সাফ মাঠে গড়াচ্ছে না। আনফার নতুন কমিটি নিজেদের গুছিয়ে নিতে সাফের কাছে কিছুদিন সময় চেয়েছিল। অবশেষে সেই সময় দিয়েছে সাফ। ১৭ দিন পিছিয়ে আগামী ২৯ আগস্ট থেকে শুরু হবে নারী সাফের খেলা। চলবে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। গত পরশু ঢাকায় অনুষ্ঠিত সাফ কংগ্রেসে টুর্নামেন্টের নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়।

এদিকে পাকিস্তান ফিফার নিষেধাজ্ঞায় ছিল বলে তাদেরকে ছাড়াই নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল দক্ষিণ এশিয়া ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা। তবে ক’দিন আগে পাকিস্তানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় ফিফা। যে কারণে এখন তারা ইচ্ছে করলে মেয়েদের সাফে অংশ নিতে পারবে। জানা গেছে, এই টুর্নামেন্টে খেলতে ইতোমধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। এ বিষয়ে সাফ সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল রোববার বলেন,‘ নারী সাফে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে পাকিস্তান। সোমবার পাকিস্তানের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। টুর্নামেন্টে নিবন্ধন করতে পাকিস্তানের কেমন সময় লাগবে তা জেনে তাদের অংশগ্রহণের বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবো।’

নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের এটি ষষ্ঠ আসর। ২০১০ সালে শুরু হওয়া এই টুর্নামেন্টের আগের পাঁচটি আসরেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারত। মাত্র একবার ফাইনালে খেলেছিল বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের ওই ফাইনালে বাংলাদেশ ৩-১ গোলে হেরেছিল স্বাগতিকদের কছে। দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ এই টুর্নামেন্টের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে গত মাসের শেষ দিকে বাংলাদেশের মেয়েরা মালয়েশিয়ার বিপক্ষে ঘরের মাঠে দুটি ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলেছে। কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে গত ২৩ জুন প্রথম প্রীতি ম্যাচে বাংলাদেশ ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয় মালয়েশিয়াকে। ২৬ জুন দ্বিতীয় ম্যাচ গোলশূন্য ড্র করে ১-০ ব্যবধানে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেন সাবিনা খাতুনরা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন