Inqilab Logo

শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

কক্সবাজারে আওয়ামী লীগের সম্মেলন থেকে ফেরার পথে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২২, ৮:৪৩ পিএম | আপডেট : ৮:৪৪ পিএম, ৩ জুলাই, ২০২২

কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলে ইউনিয়ন আওয়ামীগের সম্মেলন থেকে ফেরার পথে পূর্ব শত্রুতার জেরে এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার (৩ জুলাই) মাগরিবের আজানের সময় খুরুশকুল ইউনিয়নের ডেইলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াস।

নিহত ফয়সাল উদ্দিন (২৫) খুরুশকুলের দক্ষিণ ডেইলপাড়ার মৃত লাল মোহাম্মদের ছেলে। সে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছিল।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রবিবার ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন ছিল। ডেইলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় হল রুমে নির্ধারিত সময়ে সম্মেলন শেষ হয়। সম্মেলন স্থলে ফয়সালকে আক্রমণের চেষ্টা চালায় এলাকায় পূর্বে হত্যার শিকার কলেজ ছাত্র নুরুল হুদার স্বজনরা। ত্রিভুজ প্রেমের সূত্রে নুরুল হুদা হত্যায় ফয়সালকে অভিযুক্ত করে আসছিল নুরুল হুদার স্বজনরা। সম্মেলনে উপস্থিত নেতা-কর্মীদের কারণে নুরুল হুদার স্বজনরা ফয়সালকে আক্রমণে ব্যর্থ হয়। পরে পুলিশ পাহারায় তাকে বাড়ি যাবার ব্যবস্থা করে আওয়ামী লীগ নেতারা। সম্মেলন শেষে বাড়ি ফেরার পথে নিহত নুরুল হুদার বাড়ির সামনে সিএনজি অটোরিকশা থেকে নামিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় গুলিবর্ষণও করা হয় বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা।

খুরুশকুল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক জসিম উদ্দিন চেয়ারম্যান তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কিছুদিন এলাকায় নুরুল হুদা নামে এক কলেজ ছাত্র খুনের ঘটনায় সম্পৃক্ত সন্দেহে নুরুল হুদার স্বজনরা তাকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনীর উল গীয়াস জানান, লাশ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে জেনেছি পূর্ব শত্রুার জের ধরে তিনি হত্যার স্বীকার হয়েছেন। তিনি ছাত্রলীগের দায়িত্বশীল বলে জেনেছি। #



 

Show all comments
  • jack ali ৩ জুলাই, ২০২২, ১০:০৮ পিএম says : 0
    Let them kill each other so that we can live in our beloved mother land peacefully.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুপিয়ে হত্যা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ