Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল লাভই হয়েছে পাকিস্তানের!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০২২, ১২:০০ এএম

গত বছরের সেপ্টেম্বরের কথা। নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফরের প্রথম ওয়ানডে শুরু হতে তখন অল্প সময়ই বাকি ছিল। হঠাৎ করেই নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কার কথা বলে সফর বাতিল করে পাকিস্তান ছেড়ে যায় কিউইরা। নিউজিল্যান্ডের পর পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা ছিল ইংল্যান্ডের ছেলে ও মেয়েদের দলের। কিন্তু তারাও সফরে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তখন। পরপর দুটি বড় দলের সফর বাতিল হওয়ায় হতাশ হয়েছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান রমিজ রাজাসহ দেশটির ক্রিকেটপ্রেমী মানুষ। কিন্তু ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের সেই সফর বাতিলে আদতে লাভ হয়েছে পাকিস্তানের ক্রিকেটের। কী লাভ, সেটা জানা যাক রমিজ রাজার কাছ থেকেই।
পাকিস্তান যে ২০২৫ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক হবে, সেটা জানা গিয়েছিল ২০২১ সালের নভেম্বরেই। এত দিন পর রমিজ জানালেন, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের সফর বাতিল করার ‘ক্ষতিপ‚রণ’ হিসেবেই আসলে আইসিসি পাকিস্তানকে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজক করেছে! পিসিবির প্রধান রমিজের কথা, নিউজিল্যান্ডের পর ইংল্যান্ডও পাকিস্তান সফর বাতিল করায় একটু চাপে পড়ে গিয়েছিল আইসিসি। সেই চাপ থেকে মুক্ত হতেই ক্রিকেটের দÐমুÐের কর্তা সংস্থাটি এমন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করাচির ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে রমিজ বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ড সফর বাতিল করায় আইসিসি চাপে পড়ে গিয়েছিল। এ চাপ তৈরি হওয়াতেই আমরা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি (আয়োজন করার অনুমতি) পেয়েছি। এর অর্থ দাঁড়ায়, পাকিস্তানের সঙ্গে যে ভুল আচরণ করা হয়েছিল, আইসিসি সেটা বুঝতে পেরেছে।’
সফর বাতিল করার জন্য নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট অবশ্য পিসিবিকে আর্থিক ক্ষতিপ‚রণও দিয়েছে। এ বছরের ডিসেম্বরে আবার তারা পাকিস্তান সফরে যাবে। সেই সফরে তারা দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে খেলবে। এরপর ২০২৩ সালে আবার পাকিস্তান সফরে পাঁচটি করে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে খেলার কথা নিউজিল্যান্ডের। আগামী সেপ্টেম্বরে ইংল্যান্ডেরও পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা। সফরে তারা সাতটি টি-টোয়েন্টি খেলবে। এরপর অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আবার তিনটি টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে যাওয়ার কথা ইংল্যান্ড দলের।
গত বছর সফর বাতিল করায় যে ইসিবি ও এনজেডসির সঙ্গে পিসিবির সম্পর্কে কোনো ক্ষতি হয়নি বলেই মনে করেন রমিজ। এ ছাড়া আইসিসির সঙ্গেও একই রকম সম্পর্ক পিসিবির, এমনটাই বলেছেন রমিজ, ‘আমাদের সঙ্গে আইসিসির সম্পর্ক খুব ভালো। কিন্তু আর্থিক দিক থেকে আমাদের আরও ভালো কিছু প্রাপ্য বলে মনে করি আমরা। এ মাসে আইসিসির সভায় আমরা বিষয়টি তুলব।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন