Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪

নির্বাচনী সহিংসতা মামলায় আ.লীগের মেয়র প্রার্থী-মন্ত্রীর মেয়ের জামাতা রাহেল কারাগারে

নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের আগের রাতে রাহেলের ছুড়িকাঘাতে নাড়িভুরি বের হয়ে যায় বিএনপি মেয়র প্রার্থীর ভাইয়ের

হবিগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০২২, ৪:৫০ পিএম

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ পৌরসভায় নির্বাচনপূর্ব সহিংসতায় আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেলের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেল পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী শাহাব উদ্দিনের মেয়ের জামাতা।

নবীগঞ্জ শহরের হাসপাতাল সড়কের মৃত গোলাম রব্বানীর পুত্র রাহেল চৌধুরী সোমবার (৪ জুলাই) দুপুরে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালত-৫ এ আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। ম্যাজিষ্ট্রেট ঝুমুর সরকার দীর্ঘ শুনানী শেষে তাঁর জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। ২টার দিকে রাহেল চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানো হয়।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০২১ সালের পৌর নির্বাচনের আগের দিন ১৫ জানুয়ারি আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেল, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরীর লোকজনের উপর হামলা করেন। এক পর্যায়ে ছাবির আহমেদ চৌধুরীর চাচাতো ভাই শফিক আহমেদ চৌধুরীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন রাহেল চৌধুরী। এতে শফিক চৌধুরীর নাড়িভুরি বের হয়ে যায়। দ্রুত তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেলে পাঠানো হয়। দীর্ঘ চিকিৎসার পর তিনি সুস্থ হন।
এ ব্যাপারে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ছাবির আহমেদ চৌধুরীর চাচাতো ভাই হাদিছ মিয়া চৌধুরী বাদী হয়ে গত বছরের ৩১ জানুয়ারি ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। তদন্ত শেষে গত ৩০ মার্চ চার্জশীট প্রদান করে পিবিআই। চার্জশীট আদালতে গৃহীত হওয়ার পর আসামীদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট ইস্যু করা হয়। সোমবার মামলার ২নং আসামী রাহেল চৌধুরী আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
বাদী পক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট বদরু মিয়া বলেন- মামলার চার্জশীট দাখিলের পর আসামী গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেলের নামে ওয়ারেন্ট ইস্যু হয়। সোমবার রাহেল চৌধুরী আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। পরে যুক্তিতর্ক শেষে আদালত গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেল এর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ