Inqilab Logo

শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ০৫ ভাদ্র ১৪২৯, ২১ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

বন্যার্ত মানুষের মাঝে সুদবিহীন ঋণ সুবিধা দিন

ত্রাণ বিতরণকালে ইসলামী নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২২, ৯:৫৯ পিএম

সারাদেশের বন্যার্ত মানুষের মাঝে সুদবিহীন ঋণ সুবিধা ও কৃষিপণ্য প্রদানের ব্যবস্থা নিন। বানভাসি মানুষের দুঃখ কষ্ট লাঘব না হওয়া পর্যন্ত ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। বানভাসি অসহায় মানুষের মাঝে এখনো স্বস্তি ফিরে আসেনি। সিলেট সুনামগঞ্জ, কুড়িগ্রাম ও মোহনগঞ্জ উপজেলার বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ এসব কথা বলেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ : সুনামগঞ্জ বিসম্ভরপুর থানায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর শায়খে চরমোনাই বলেছেন, শুধু উন্নয়ন উন্নয়ন বলে স্লোগান দিলেই হবে না, মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে সরকার চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে। সিলেট সুনামগঞ্জে বন্যা দুর্গত এলাকায় অসহায় মানুষদের জন্য সরকার কার্যকর কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। অবিলম্বে বানভাসি মানুষের পুনর্বাসনে সরকারকে নজর দিতে হবে।

আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, সউদী আরব শাখার প্রধান উপদেষ্টা মাওলানা মিজানুর রহমান, জেলা সভাপতি মাওলানা শহিদুল ইসলাম পলাশী, বামুক সদর আবদুল গফুর, রহমতুল্লাহ, জেলা সেক্রেটারি মাওলানা সোহেল আহমদ, জয়েন্ট সেক্রেটারি মুফতি হোসাইন আল হারুন, তানভীর আহমেদ তাসনিম, ছাত্র আন্দোলন সভাপতি আইয়ুবুর রহমান। মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, সরকার বন্যা দুর্গত মানুষের সাথে তামাশা করছে। ইসলামী আন্দোলন ক্ষতিগ্রস্ত বানভাসি মানুষের পাশে ছিলো, আছে এবং থাকবে, ইনশাআল্লাহ। তিনি সারাদেশের বন্যার্ত মানুষের মাঝে সুদবিহীন ঋণ সুবিধা ও কৃষিপণ্য প্রদানের দাবি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদ : বাংলাদেশ আইম্মাহ পরিষদের উদ্যোগে সিলেটের বালাগঞ্জে বানভাসিদের মধ্যে দ্বিতীয় দফা ত্রাণ বিতরণ ও নগদ অর্থ প্রদান সম্পন্ন হয়েছে।আজ মঙ্গলবার সংগঠনটির উদ্যোগে বালিগঞ্জ থানার খান্দিগাঁও, আমপারা, রুগনপুর, দেওয়ান বাজার ইউনিয়নে শতাধিক বানভাসি মানুষের মাঝে জরুরি খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। এ সময় স্থানীয় বেশ কয়েকটি ক্ষতিগ্রস্ত মাদরাসায়ও অর্থ সহযোগিতা প্রদান করা হয়। বাংলাদেশ আইম্মাহ্ পরিষদের মহাসচিব মাওলানা এনামুল হক মূসা উপস্থিত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের উদ্দেশে বলেন, বন্যার শুরু থেকে এদেশের আলেম-ওলামা ও ইমাম খতীবরা প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থানে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য, বস্ত্র,ওষুধ, বিশুদ্ধ পানিসহ নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করে আসছে।

শ্রীনগর হাসাড়া ইউনিয়ন ইসলাহুল উম্মাহ পরিষদ : মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরের হাঁসাড়া ইউনিয়ন ইসলাহুল উম্মাহ পরিষদের উদ্যোগে হাঁসাড়া বারইখালী উলামায়ে কেরাম ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় কুড়িগ্রাম জেলা রৌমারী উপজেলায় ১৬০ জন পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতা করা হয়েছে আজ মঙ্গলবার নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলায় ২ বটতলী বানিহারি ইউনিয়নে বানভাসি ৩৫০টি পরিবার পরিবারকে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করা হয়। সর্বমোট পাঁচশত পরিবারকে নগদ অর্থ সহযোগিতা করা হয় । ত্রাণ বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন ইসলাহুল উম্মাহর সভাপতি মাওলানা ইউনুস কাসেমী, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ জহিরুল ইসলাম, বারইখালি ইউনিয়নের বাজার মসজিদের সম্মানিত খতিব মাওলানা মেরাজুল হক, আশাদুল ইসলাম ও মাওলানা রুহুল আমিন নগরী। এসময়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের ঘরবাড়ি ও সড়ক পুর্ননির্মাণে সরকারকে দ্রুত প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ দিতে হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ