Inqilab Logo

সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

সরকার নিশ্চিত পতন বুঝতে পেরে মরণ কামড় দিতে শুরু করেছে : খুলনায় বিএনপি নেতৃবৃন্দ

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১ আগস্ট, ২০২২, ৫:২১ পিএম

খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপির নেতারা বলেছেন, পুলিশ দিয়ে হামলা করে, হত্যা করে, মামলা দিয়ে ও গুম করে আমাদের কাঙ্খিত লক্ষ্য থেকে দূরে সরানো যাবে না। অচিরেই বাংলাদেশে নতুন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা দেশনায়ক তারেক রহমানের নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে। সকল অনাচারের বিচার এই দেশের মাটিতেই হবে এবং আইন কাঠগড়ায় দাড় করানো হবে অবৈধ সরকারকে। নিশিরাতের সরকার নিজেদের পতন আঁচ করতে পেরেই মরণ কামড় দিতে শুরু করেছে। তারা জনগণের সাথে ভাঁওতাবাজি, অসত্য বক্তব্য এবং বিরোধী দলের জীবন হরণে লিপ্ত রয়েছে। একদিকে সরকার সভা-সমাবেশে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও দলীয় ক্যাডারদের লেলিয়ে দিয়ে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদেরকে হত্যা ও আহত করছে, আবার অন্যদিকে নিজেদেরকে গণতন্ত্রী বলে দাবি করছে।

আজ সোমবার দুপুর ১২টায় কেডি ঘোষ রোডস্থ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ভোলায় ‘পুলিশের হামলায়’ স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আব্দুর রহিম নিহতের ঘটনায় কেন্দ্রীয় বিএনপির দুইদিনের কর্মসুচির অংশ হিসেবে প্রথম দিনে খুলনা মহানগর ও জেলার বিএনপির উদ্যোগে গায়েবানা জানাজা পুর্ব সংক্ষিপ্ত আলোচনায় তারা এসব কথা বলেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, গণতন্ত্র হত্যা করে অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে বর্তমান সরকার নানা ধরনের সর্বনাশা সহিংসপন্থা অবলম্বন করেছে। গণবিক্ষোভের বিস্ফোরণ ঠেকানোর জন্যই দলীয় চেতনায় সাজানো প্রশাসন ও আওয়ামী সন্ত্রাসীদের অবৈধ অস্ত্র দিয়ে মাঠে নামিয়েছে। তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে প্রতিদিনই বিএনপি নেতাকর্মীদের রক্ত ঝরছে। বিএনপির কর্মসূচির কথা শুনলেই আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী প্রশাসন বিচলিত হয়ে পড়ে।

জানাজায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব রকিবুল ইসলাম বকুল, জেলা বিএনপির আহবায়ক আমির এজাজ খান, মহানগর সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন, জেলা সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পি, স ম আ. রহমান, অ্যাড. নুরুল হাসান রুবা, কাজী মাহমুদ আলী, আজিজুল হাসান দুলু, শের আলম সান্টু, আবুল কালাম জিয়া, বদরুল আনাম খান, মাহাবুব হাসান পিয়ারু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, মাসুদ পারভেজ বাবু, শেখ সাদী, হাসানুর রশিদ চৌধুরী মিরাজ, জুলফিকার আলী জুলু, তৈয়েবুর রহমান, শামীম কবির, আশরাফুল আলম নান্নু, এনামুল হক সজল, শেখ জাহিদুল ইসলাম, আ. রাজ্জাক, হাফিজুর রহমান মনি, ওয়াহিদুর রহমান দিপু, শাহিনুল ইসলাম পাখি, রুবায়েত হোসেন বাবু, আরিফ ইমতিয়াজ খান তুহিন, কে এম হুমায়ুন কবির প্রমূখ। গায়েবানা জানাজার পুর্বে নেতাকর্মীরা কালো ব্যাচ ধারন করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ