Inqilab Logo

বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

প্রধানমন্ত্রীর কাছে চক্রান্তকারীদের নাম জানতে চান মির্জা ফখরুল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২২, ৬:৫৮ পিএম

কারা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে, তাদের নাম জানতে চেয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মির্জা ফখরুল বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তার বিরুদ্ধে নাকি নতুন করে চক্রান্ত শুরু হচ্ছে। তাকে সরিয়ে দেওয়ার চক্রান্ত চলছে এবং তিনি তাদের চেনেন। আপনি দয়া করে তাদের নামগুলো উচ্চারণ করুন। কারা চক্রান্ত করছে, পরিষ্কার করে বলুন। তাদের নাম জানতে চাই।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ‘গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা’ শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি। সরকারকে সরানোর আন্দোলন কোনো চক্রান্ত নয়—উল্লেখ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকারকে সরানোর আন্দোলন কোনো চক্রান্ত নয়। আমরা প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে বলতে চাই, জনগণের আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চাই। এর জন্য আপনারা আমাকে যদি ফাঁসি দিতে চান, দিন। এখানে চক্রান্তের কোনো প্রশ্ন উঠতে পারে না, ষড়যন্ত্রেরও না। ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করে ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে।

আওয়ামী লীগ কখনো গণতন্ত্রের পক্ষে ছিল না— মন্তব্য করে তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। তারা মুখে বলবে ভালো কথা, কিন্তু কাজ করে তার উল্টোটা। আওয়ামী লীগ এখানেই সবচেয়ে বড় অপরাধী। তারা আমাদের সমস্ত আশা-আকাঙ্ক্ষা, অর্জন, ৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আমরা যা অর্জন করেছি, সেগুলো ধ্বংস করে দিয়েছে। প্রতিটি গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে দিয়েছে। বিচারবিভাগ ধ্বংস করেছে, প্রশাসনকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, একজন মেধাবী ছাত্র বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে এলেও চাকরি পাবে না। কারণ, বর্তমানে ডিএনএ টেস্ট করে চাকরি দেওয়া হয়। সেখানে যদি ন্যূনতম গন্ধ থাকে, তিনি আওয়ামী লীগের পক্ষের লোক নন বা বিরোধী দলের কারও আত্মীয়, তাহলে তিনি চাকরি পাবেন না। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গনি চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে সভাপতি মুহাম্মদ আবদুল্লাহ, সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, রুহুল আমিন গাজী, মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম ও সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম প্রমুখ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মির্জা ফখরুল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ