Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

বগুড়ায় সাদা পোশাকে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে জনতার হাতে এস আই আটক

পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ, সোর্স গ্রেফতার

বগুড়া ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৫ আগস্ট, ২০২২, ৭:৪৩ পিএম

বগুড়ায় শহরতলীর নাটাইপাড়া বৌবাজার এলাকায় শুক্রবার দুপুরে এক নাপিতের বাসায় গিয়ে চাঁদাবাজি করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয়েছে সোর্স সহ এক এস আই। পরে খবর পেয়ে ৯৯৯ এর উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বগুড়া সদর থানার এস আই মাসুদ রানা ও পুলিশের সোর্স ইকবালকে উদ্ধার করেছে। মাসুদ রানাকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ করা হয়েছে। অপরদিকে পুলিশের সোর্স ইকবালকে গ্রেফতার করে থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগী তরুন চন্দ্র শিলের স্ত্রী সুবর্না রানী শিল জানান, শুক্রবার বেলা দেড়টায় বগুড়া সদর থানার এসআই পরিচয় দিয়ে সাদা পোশাকে এক ব্যাক্তি সোর্স ইকবাল সহ তাদের বাসায় আসে। তারা তার স্বামী তরুণ চন্দ্র শিলের কাছে ২০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। তার স্বামী পেশায় একজন নাপিত হওয়ায় এত টাকা চাঁদা দাবির কারণে রীতিমতো হকচকিয়ে যান। চাঁদা দিতে অপারগতায় এস আই মাসুদ রানা ও পুলিশের সোর্স ইকবাল তরুণকে মারধর করতে শুরু করে। বাধা দিতে গেলে তরুণের স্ত্রী, শাশুড়িকে ও নাজেহাল করে বলা হয়, চাঁদা না দিলে গাঁজা সহ চালান করা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়।

এসময় হট্টগোলের কারণে আশেপাশের লোকজন তরুন শিলের বাড়িতে ভীড় জমায়। একপর্যায়ে তারা উত্তেজিত হয়ে মাসুদ রানা ও ইকবালকে আটক করে ঘটনা জানিয়ে জরুরি পরিসেবা ৯৯৯ এ ফোন করে। ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এস আই মাসুদ রানা ও সোর্স ইকবালকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এই ঘটনায় এলাকাবাসী পুলিশ সুপার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বগুড়া পুলিশের দায়িত্ব প্রাপ্ত এএসপি সরাফত ইসলাম জানান, এস আই মাসুদ রানাকে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজ এবং সোর্স পরিচয়দানকারী ইকবালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শেষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ