Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে রাবিতে মশাল মিছিল

রাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ আগস্ট, ২০২২, ১১:২০ পিএম

জ্বালানি তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি ও শাহবাগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশী হামলার প্রতিবাদে মশাল মিছিল ও সমাবেশ করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বাম ছাত্র-সংগঠনগুলো। রোববার (০৭ আগস্ট) সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আমতলা থেকে মশাল মিছিল বের হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্বরে সমাবেশে মিলিত হয় তারা।

'তেলের দাম বাড়লো কেন? প্রশাসন জবাব চাই', 'ভিপি নূরের সৈনিকরে এক হও এক হও', 'ছি! ছি! শেখ হাসিনা, লজ্জায় বাঁচিনা', শেখ হাসিনার গদিতে আগুন জালাও এক সাথে', এমন সব স্লোগান দিতে থাকেন নেতাকর্মীরা।

রাবি শাখা ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রাকিব হাসানের সঞ্চালনায় রাবি ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি মো. নাঈমুল ইসলাম নাইম বলেন, বিশ্ববাজারে দিন দিন তেলের দাম কমছে। গত বৃহস্পতিবারও আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি পণ্যটির দর হ্রাস পেয়েছে। প্রতি ব্যারেলের মূল্য নেমেছে ৯০ ডলারের নিচে। অথচ বাংলাদেশে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম ৪২.৫% বেড়ে হয়েছে প্রতি লিটার ১১৪ টাকা। পেট্রোলের দাম ৫১.১৬% বেড়ে প্রতি লিটারের দাম হয়েছে ১৩০ টাকা। আর অকটেনের দাম বেড়েছে ৫১.৬৮%, প্রতি লিটার কিনতে গুনতে হবে ১৩৫ টাকা।

এটা দেশের জন্য অশুভ সংকেত। মেগা প্রজেক্টের নামে মেগা দুর্নীতির ফলস্বরূপ রিজার্ভ কমে গেছে। যার প্রভাব পড়েছে দেশজুড়ে। এভাবে একের পর এক দাম বৃদ্ধির নজির বাংলাদেশের ইতিহাসে নাই, তাই এখন সময় এসেছে প্রতিবাদ করার। জনগণকে এখন ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এমন দুর্নীতিবাজ ও মাফিয়াতন্ত্রের বিরুদ্ধে, তাহলেই মুক্তি সম্ভব।

এসময় অবিলম্বে তেলের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারসহ অন্যান্য নিত্যপণ্যের দাম কমানোর দাবি জানানো হয়। একইসাথে শাহবাগে ছাত্র নেতৃবৃন্দের উপর ন্যক্কারজনক পুলিশী হামলার প্রতিবাদ জানানো হয়। দাবি না মানলে আন্দোলন চলমান রাখারও ঘোষণা দেওয়া হয়।

এসময় রাকসু আন্দোলন মঞ্চের সমন্বয়ক আব্দুল মজিদ অন্তরের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন, শাখা নাগরিক ছাত্র ঐক্যের সভাপতি মেহেদী হাসান, ছাত্র অধিকার পরিষদের সভাপতি নাঈমুল ইসলাম এবং ছাত্র ফেডারেশন এর সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ