Inqilab Logo

সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

মঠবাড়িয়ায় পার্লার ব্যবসায়ী খুনের অভিযোগে স্বামী ও ভাবী গ্রেপ্তার

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৯ আগস্ট, ২০২২, ৫:৪৫ পিএম

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌর শহরের পার্লার ব্যবসায়ী শাম্মী আক্তার (৪০) নামের এক নারীকে খুনের অভিযোগে পুলিশ সোমবার রাতে স্বামী শেখ সিরাজুল সালেকিন (৩৩) ও শাম্মীর ভাইয়ের স্ত্রী আয়শা খানমকে (৫০) গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করেছে। সোমবার রাতে শাম্মীর ছেলে সাইম আলম (১৭) বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। এর আগে পুলিশ সোমবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্স থেকে শাম্মির লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পিরোজপুর প্রেরণ করেছে।
গ্রেপ্তারকৃত স্বামী শেখ সিরাজুস সালেকীন লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার দরবেশপুর গ্রামের শেখ মোহম্মদ আলীর পুত্র এবং আয়শা খানম শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা গ্রামের এমাদুল হকের স্ত্রী ও মঠবাড়িয়া কে এম লতীফ ইনস্টিটিউশনের সিনিয়র শিক্ষিকা।
জানাযায়, শাম্মী আক্তারের দ্বিতীয় স্বামী শেখ সিরাজুল সালেকিন ঢাকায় ব্যবসা করেন। ১৩ বছর আগে প্রথম স্বামী ফিরোজ আলমের সঙ্গে শাম্মী আক্তারের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তাদের ২ ছেলে আছে। ২ বছর আগে সিরাজুল সালেকিনের সঙ্গে শাম্মীর বিয়ে হয়। শাম্মী মঠবাড়িয়া শহরের থানাপাড়ায় একটি ভাড়া বাড়িতে ২ ছেলেকে নিয়ে থাকতেন।
শাম্মীর বাড়ি বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার ছোট রাজাপুর গ্রামে। তিনি মঠবাড়িয়া শহরের কে এম লতীফ সুপার মার্কেটের শাম্মী বিউটি পারলারের মালিক ছিলেন।
মামলার এজাহার সূত্রে জানাযায়, সিরাজুল ও শাম্মীর বিবাহ বার্ষিকী উপলক্ষে রোববার সিরাজুল ঢাকা থেকে আসেন। বিবাহ বার্ষিকী অনুষ্ঠান উপলক্ষে আয়শা খানম ওই বাড়িতে যান। শাম্মী গভীর রাতে সিরাজুল ও আয়শাকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেললে শাম্মী ও সিরাজুলের ঝগড়া হয়। ঝগড়ার একপর্যায়ে সিরাজুল ক্ষিপ্ত হয়ে শাম্মীর মুখে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে।
মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নূরুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়ে সিরাজুল সালেকিন ও আয়শা খানমকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে হত্যা মামলায় তাঁদের ২জনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেফতার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ