Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আবারো আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ!

| প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : টি-২০ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ পেস বোলার তাসকিন আহমেদের সঙ্গে বাঁ-হাতি স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে সন্দেহ পোষণ করে দুই আম্পায়ার এস রবি এবং রড টাকার উঠিয়েছিলেন প্রশ্ন। তাদের রিপোর্টের প্রেক্ষিতে চেন্নাইয়ের ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষার অকৃতকার্য হয়ে অবৈধ বোলিংয়ের দায়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধও হয়েছেন এই দুই বোলার।  বিসিবি’র বোলিং রিভিউর পরীক্ষায় পাস করে, অ্যাকশন শুধরে গত ২৩ সেপ্টেম্বর অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে পরীক্ষা দিয়ে কৃতকার্য হয়ে আইসিসি’র বোলিং নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্ত হয়েছেন একসঙ্গে দু’জনই। তবে নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পেয়ে তাসকিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে  সুনামের সাথে করছেন বল। সেখানে খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ০ রানে ৩ উইকেটে সংক্ষিপ্ত ভার্সনের ক্রিকেটে বিশ্বরেকর্ড করেও বাঁ-হাতি স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। গত ২৮ নভেম্বর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে ১৯তম ওভারের   প্রথম বলটির অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ২ আম্পায়ার গাজী সোহেল এবং রশিদ রিয়াজ। ম্যাচ রেফারী নিয়ামুর রশিদ রাহুলের কাছে ওই বলটির অ্যাকশন নিয়ে করেছেন তারা রিপোর্ট। গত ২৬ নভেম্বর রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে খুলনা টাইটান্সের ক্যারিবিয়ান পেস বোলার কেভন কুপারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে ২ আম্পায়ার মাহাফুজুর রহমান এবং রশিদ রিয়াজের প্রশ্ন তোলার ২ দিন পর আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে উঠল প্রশ্ন। আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশন নিয়ে ২ আম্পায়ারের রিপোর্টের সত্যতা স্বীকার করেছেন বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির চেয়ারম্যান এবং বিসিবি’র বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির আহবায়ক জালাল ইউনুসÑ ‘সানি শেষ ম্যাচে (২৮ নভেম্বর) রিপোর্টেড হয়েছে। বিসিবি’র বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটি ভিডিও ফুটেজ দেখে ওই ডেলিভারি বিশ্লেষণ করবে। টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার পর যতো দ্রুত সম্ভব তা করা হবে।’
অ্যাকশন শুধরে, ল্যাবরেটরিতে বায়ো মেকানিক্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে কেন আবার আরাফাত সানির  বোলিং অ্যাকশন নিয়ে উঠবে প্রশ্ন। তবে বিপিএল ঘরোয়া ক্রিকেট বলে এই আসরে আম্পায়ারের রিপোর্টে বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও রাজশাহীর কেভন কুপার কিংবা রংপুর রাইডার্সের আরাফাত সানি আসরটিতে হচ্ছেন না নিষিদ্ধ। এমনটাই জানিয়েছেন জালাল ইউনুসÑ ‘এবার যেহেতু নির্দিষ্ট  কোনো আইন ও পূর্ব সতর্কতামূলক ব্যবস্থা রাখা হয়নি, তাই   কেভন কুপার ও আরাফাত সানির  বোলিং অ্যাকশন নিয়ে আম্পায়াররা প্রশ্ন তুললে  আমরা তাদেরকে নিষিদ্ধ  ঘোষণা করতে পারছি না। কারণ আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ভিডিও ফুটেজ ও বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে  বোলিং অ্যাকশন পরখ করার প্রয়োজনীয় উপকরণ  নেই।’
পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) সর্বশেষ আসরে  কেভন কুপারের বোলিং অ্যাকশন হয়েছে প্রশ্নবিদ্ধ। বিপিএলের ৪ আসর মিলে সর্বাধিক ৫৯ উইকেট শিকারি উইন্ডিজ পেস বোলার কেভন কুপার বিপিএল ফোর এ প্রশ্নবিদ্ধ হলেন আর এক দফায়। তারপরও বিপিএলে খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারছে না বিসিবি। এমনটাই জানিয়েছেন জালাল ইফনুসÑ ‘ইতোমধ্যে  কেভন কুপারের ভিডিও ফুটেজ পাঠিয়ে দিয়েছে বিসিবি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডকে। রিপোর্টেড হওয়ার পরও এবারের বাকি ম্যাচগুলোতে খেলতে পারবে সে। তবে আগামীবার থেকে আমরা  বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে আরো কঠোর হবো। কারো  বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন উঠলে ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে তা খতিয়ে দেখা হবে। আর প্রশ্নবিদ্ধ বোলার রিপোর্টেড হলে তাকে নিষিদ্ধ  ঘোষণা করা হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: টি-২০ বিশ্বকাপ

১৪ মার্চ, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন