Inqilab Logo

বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

বাড়ল কবর দেয়ার খরচ

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ আগস্ট, ২০২২, ১০:৪৩ এএম

রাজধানীর ছয়টি কবরস্থানে পুনঃকবর ফি বাড়িয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এখন কবরস্থানগুলোর সংরক্ষিত এলাকায় একটি কবরের ওপর আরেকটি কবর দিতে বনানীতে ৫০ হাজার টাকা এবং অন্য পাঁচটি কবরস্থানে ৩০ হাজার টাকা ফি দিতে হবে ডিএনসিসিকে। আগে এ ফি ছিল ২০ হাজার টাকা করে। এ ছাড়া কবর ১৫ থেকে ২৫ বছরের জন্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রেও ফি বাড়ানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে সংস্থাটি।

জানা যায়, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মোট ছয়টি কবরস্থান রয়েছে। এগুলো হলো- উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থান, বনানী কবরস্থান, মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান, রায়েরবাজার বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন কবরস্থান, উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টর কবরস্থান ও উত্তরা ১৪ নম্বর সেক্টর কবরস্থান।
এসব কবরস্থানের প্রতিটিতে মোট জায়গার তিন ভাগের এক ভাগ এলাকা সংরক্ষিত রাখা হয়। আর বাকি দুইভাগ এলাকায় সব শ্রেণিপেশার মানুষকে কবর দেয়া হয়। সাধারণ এলাকায় কবর দিতে ডিএনসিসিকে ৫০০ টাকা দিতে হয়। এর পাশাপাশি গোরখদক, বাঁশ, চাটাইসহ আনুষঙ্গিক আরো কিছু টাকা খরচ হয়। সাধারণ এলাকায় কবর দিলে সেই কবর দুই বছর সংরক্ষিত রাখা হয়। পরে ওই কবরে অন্যকে কবর দেয়া হয়। তবে সংরক্ষিত এলাকায় কোনো কবর দিলে তা ১৫ বছর থেকে ২৫ বছর সংরক্ষণ করা হয়। ১৫ বছর সংরক্ষণ করতে ডিএনসিতে ৮ লাখ টাকা এবং ২৫ বছর সংরক্ষণের জন্য দিতে হয় ১৫ লাখ টাকা। এসব সংরক্ষিত কবরে কাউকে কবর দেয়ার পর তার আত্মীয় কেউ মারা গেলে ওই কবরের ওপর তাকে কবর দেয়া যায়। তবে এ জন্যও ২০ হাজার টাকা ফি দিতে হতো। গত ৮ আগস্ট ডিএনসিসির করপোরেশন সভায় এ ফি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ডিএনসিসি ওই দিনই একটি অফিস আদেশ জারি করেছে। এতে বনানী কবরস্থানে সংরক্ষিত কবরে পুনঃকবরের জন্য ৫০ হাজার টাকা এবং অন্যান্য কবরের সংরক্ষিত কবরে পুনঃকবরের জন্য ৩০ হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম করপোরেশন সভায় জানিয়েছিলেন, নগরবাসীকে কবর সংরক্ষণে নিরুৎসাহিত করতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
উত্তর সিটির প্রধান সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা মোহাম্মদ মামুন-উল হাসান নয়া দিগন্তকে বলেন, সাধারণ এলাকায় কবর দিতে ডিএনসিসির ফি মাত্র ৫০০ টাকা। আর আগে সবগুলো কবরস্থানে পুনঃকবর ফি ছিল ২০ হাজার টাকা। কবর সংরক্ষণের প্রবণতা নিরুৎসাহিত করতে করপোরেশন সভায় ফি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যা ইতোমধ্যে কার্যকর হয়েছে। তিনি বলেন, কবর সংরক্ষণে এখন ১৫ বছরের জন্য ৮ লাখ টাকা এবং ২৫ বছরের জন্য ১৫ লাখ টাকা নেয়া হয়। গত চার বছর ধরে এ পরিমাণ টাকা নেয়া হচ্ছে। বর্তমানে নতুন করে একটি নীতিমালা করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, নীতিমালা চূড়ান্ত হলে কবর সংরক্ষণের ফিও বাড়ানো হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কবর

১২ আগস্ট, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ