Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

খুলনায় ডিমের হালির দাম হাফ সেঞ্চুরি পার হল

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ আগস্ট, ২০২২, ৫:৫০ পিএম

তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর দাম নাগালের বাইরে চলে গেছে বেশ আগেই। প্রতিদিনই পণ্যের দাম পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে। খুলনায় সে তালিকায় এবার যুক্ত হল ডিমের নাম। কোনো যৌক্তিক কারণ ছাড়াই বেড়েছে ডিমের দাম। বৃহষ্পতিবার থেকে ডিমের হালি হাফ সেঞ্চুরি পার হয়েছে। সরবরাহে ঘাটতি নেই অথচ বিক্রেতাদের গতানুগতিক একটাই যুক্তি-সরবরাহ কম থাকায় পাইকারী বাজারে ডিমের দাম বেড়েছে, খুচরা বাজারে এর প্রভাব পড়েছে।

শুক্রবার খুলনার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ফার্মের লাল ডিম যা অন্য সময় প্রতি হালি ৩৬ থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হত, তা বিক্রি হচ্ছে ৪৬ টাকায়। মাঝারী ডিম ৪৮ থেকে ৫০ টাকা। তুলনামূলকভাবে সামান্য বড় ডিম বিক্রি হচ্ছে ৫২ থেকে ৫৪ টাকা হালি। ডিমের দাম আরও বাড়বে বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা।

স্থানীয় ময়লাপোতা মোড়ে সান্ধ্যবাজারের ডিম বিক্রেতা আলমগীর হোসেন বলেন, গত কয়েকদিনে সব ধরণের ডিমের দাম বেড়েছে। হাঁসের ডিম বিক্রি হচ্ছে প্রতি হালি ৬২ থেকে ৬৫ টাকায়। ফার্মের লাল বড় ডিম হালি ৫২ থেকে ৫৪ টাকা।
নিউমার্কেট এলাকার ডিম বিক্রেতা আলী হোসেনও একই রকম কথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, ছোট ডিম ৪০ থেকে ৪২ টাকা, বড় ডিম ৫০ থেকে ৫২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। একই বাজারের পাইকারী ডিম বিক্রেতা আনোয়ার হোসেন বলেন, ফার্ম গুলো দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। তাই বাধ্য হলে লোকসান এড়াতে আমরাও বেশি দামে ডিম বিক্রি করছি।

জয় পোল্ট্রি ফার্মের মালিক অজয় দাস বলেন, দীর্ঘদিন উৎপাদন খরচের তুলনায় বাজারে ডিমের দাম কম থাকায় অনেক খামার বন্ধ হয়ে গেছে। সে কারণে এখন চাহিদার তুলনায় ডিমের উৎপাদন অনেক কম। সরবরাহ সংকটের কারণে দাম বাড়ছে। এছাড়া পোল্ট্রি খাবারের দামও অনেক বেড়েছে, জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় পরিবহন খরচ বেড়েছে। খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার প্রায় ২০ থেকে ২৫ ভাগ ডিম ও মুরগির জোগান দেন এ অঞ্চলের খামারিরা। তাই খুলনা্সহ আশেপাশের সব জেলাইতেই ডিমের দাম বাড়ছে।

খুলনা পাইকারি ডিম ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সভাপতি শেখ সাকিব হোসেন জানান, হাঁস মুরগির খাবার ও পরিবহন ব্যয় বৃদ্ধির কারণে ডিমের দাম বেড়েছে। আপাতত দাম না বাড়িয়ে খামারিদের সামনে আর কোনো পথ খোলা ছিল না।
খুলনা পোল্ট্রি ফিস ফিড শিল্প মালিক সমিতির মহাসচিব এস এম সোহরাব হোসেন জানান, পোল্ট্রি মুরগির খাবারের দাম বৃদ্ধির কারণেই ব্যবসায়ীরা ডিমের দাম বৃদ্ধি করেছেন। এ ক্ষেত্রে সরকার ভর্তুকি দিলে দাম কমানো সম্ভব হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ