Inqilab Logo

রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৮ সফর ১৪৪৪

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদের হুমকি রাশিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০২২, ৮:২৬ পিএম | আপডেট : ৯:২৬ পিএম, ১৩ আগস্ট, ২০২২

যুক্তরাষ্ট্র যদি রাশিয়ার কোনো সম্পদ জোরপূর্বক বাজেয়াপ্ত করে তবে তা ওয়াশিংটন ও মস্কোর দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করে দেবে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা বিভাগ স্থানীয় সময় আজ শনিবার এই কথা জানিয়েছে। রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদমাধ্যম তাসের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।
রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উত্তর আমেরিকা বিভাগের প্রধান আলেক্সান্ডার দারকাইভ তাসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমরা যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্ক করে দিতে চাই- তাঁরা যদি আমাদের সম্পদ জোরপূর্বক বাজেয়াপ্ত করে, তাহলে ওয়াশিংটনের সঙ্গে আমাদের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক সম্পূর্ণরূপে শেষ হয়ে যেতে পারে। এ ধরনের পরিস্থিতি তাদের বা আমাদের কারও জন্যই কাঙ্ক্ষিত নয়।’
গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে তাদের দাবিকৃত ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ পরিচালনার পরপরই রাশিয়ার ওপর দফায় দফায় নিষেধাজ্ঞা দেয় যুক্তরাষ্ট্র ও তার পশ্চিমা মিত্ররা। পশ্চিমারা এখন পর্যন্ত রাশিয়ার প্রায় ৬৪ হাজার কোটি ডলারের সমমূল্যের স্বর্ণ ও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাজেয়াপ্ত করেছে। এ ছাড়া রুশ ধনকুবেরদেরও প্রায় ৩ হাজার কোটি ডলারের সম্পদ জব্দ করেছে তারা।
রাশিয়ার এসব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করে তা দিয়ে ইউক্রেন পুনর্গঠনের আলোচনা চলছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতিবিষয়ক প্রধান কূটনীতিবিদ জোসেপ বোরেলকে এ নিয়ে কয়েক বার মন্তব্য করতে শোনা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগও এ বিষয়ে কংগ্রেসের অনুমতির চেষ্টা করছেন বলে গত জুলাইয়ে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা।
এদিকে, পূর্ব ইউক্রেনের দোনেৎস্ক প্রদেশের পিস্কি শহর গতকাল সম্পূর্ণ দখলে নেওয়ার দাবি করেছে রাশিয়া। কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ শহরটি দখল প্রদেশটিতে রুশদের অগ্রগতি বাড়াবে। এ ছাড়া ইউক্রেনকে যুক্তরাষ্ট্রের দেওয়া আরও কয়েকটি শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা ‘হিমার্স’ ও গোলাবারুদ ধ্বংসের দাবি করেছে মস্কো। সূত্র : রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাশিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ