Inqilab Logo

শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

খুলনায় মুক্তিপণের দাবিতে অপহৃত দুই যুবক উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৩ আগস্ট, ২০২২, ৮:৫৩ পিএম

খুলনা মহানগরীর খানজাহান আলী থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ফুলবাড়ীগেট শক্তি ফাউন্ডেশনের সভাপতি উজ্জলসহ ৩ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় তাদের স্বীকারোক্তিতে গিলাতলা দক্ষিণ পাড়ার অপহৃত মোঃ জিহাদ শেখ ও মোঃ আলামিন হোসেনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আজ শনিবার জিহাদ শেখের বাবা মোঃ আসলাম শেখ বাদি হয়ে খানজাহান আলী থানায় মামলা দায়ের করেছেন। শুক্রবার ওই দুইজনকে অপহরণ করা হয়। শনিবার ভোর রাতে পুলিশ অপহরণকারীদের গ্রেফতার ও অপহৃত দুইজনকে উদ্ধার করে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে গিলাতলা দক্ষিণপাড়ার সামাদ শেখের ছেলে ভ্যানচালক জিহাদ শেখ ভ্যান নিয়ে বাসা থেকে বের হয়। রাত সোয়া ৮ টার দিকে জিহাদ তার ছোট ভাই জিয়ারুলের মোবাইলে ফোন দিয়ে বলে আমাকে আটকিয়ে রেখেছে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে আয়, এরপরই ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। কিছুক্ষণ পর আবার ফোন করে অপহরণকারীরা জিহাদের ছোট ভাই জিয়ারুলকে একটা বিকাশ নম্বর দেয় এবং ওই নম্বরে টাকা পাঠাতে বলে। জিহাদের পিতা বিষয়টি খানজাহান আলী থানার ওসিকে অবহিত করলে খানজাহান আলী থানা পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় অপহরণকারীদের অবস্থান আড়ংঘাটা থানাধীন তেলিগাতী পাকার মাথায় আছে বলে নিশ্চিত হয়।

জিয়ারুল অপহরনকারীদের ফোনে বলে এত রাতে বিকাশের দোকান খোলা নেই, সরাসরি ছাড়া টাকা দেওয়া সম্ভব হচ্ছেনা। তখন ফোনে তাদেরকে অপহরণকারীরা কুয়েট পকেট গেটের সামনে যেতে বলে। তাদের কথা মতো জিহাদের পিতা আসলাম ভোর রাত ৪ টার দিকে কুয়েট পকেট গেটের কাছে গেলে অপহরণকারী চক্রের সদস্য স্থানীয় শক্তি ফাউন্ডেশনের সভাপতি উজ্জল (২৭), তেলিগাতী সরদার পাড়া এলাকার হান্নান শেখের ছেলে তরিকুল (২০), একই এলাকার আবু বক্কারের ছেলে মোঃ মুন্না হোসেন (২৬) সাথে কথা বলার এক পর্যায়ে পুর্বে থেকেই ওঁৎ পেতে থাকা পুলিশ দেখে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ তাদেরকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকৃতরা স্বীকার করে তারা ২ জনকে আটকে রেখেছে এবং তাদের মুক্তিপণ বাবদ ৫০ হাজার টাকা নিতে এসেছে কুয়েট পকেট গেটে।

অপহরণকারীদের দেওয়া তথ্যমতে, তেলিগাতী মধ্যপাড়া ক্লাব মোড়স্থ মৃত শেখ শাহাজানের ভাড়াটিয়া মোঃ জামিরুল ইসলামের ভাড়া বাসা থেকে অপহরণকারীদের হেফাজতে থাকা মোঃ জিহাদ শেখ ও মোঃ আলামিন হোসেনকে উদ্ধার করে পুলিশ।

অপহরণের স্বীকার হওয়া ভ্যান চালক মোঃ জিহাদ শেখ জানান, শুক্রবার রাত সোয়া ৮ টার দিকে ভ্যান ভাড়া করে তাকে তেলিগাতী মধ্যপাড়া ক্লাবমোড়ে নিয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন মহিলাদের সাথে অশ্নিল ভিডিও ও ছবি তুলে ভাইরাল করে দিবে বলে হুমকি দেয়।

খানজাহান আলী থানার ওসি মোঃ কামাল হোসেন খান জানান,পুলিশের একটি বিশেষ টিম রাতভর অভিযান চালিয়ে আসামি ও অপহৃত উদ্ধারে সক্ষম হয়। এ ঘটনায় জিহাদ শেখের বাবা আসলাম শেখ মামলা করেছেন। এজাহারবুক্ত আসামি তেলিগাতী সরদার পাড়া এলাকার আলী আহম্মেদ’র ছেলে রুবেলকে আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ