Inqilab Logo

সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

ভক্তদের ভক্তিতে শেষ হলো সিলেট ইসকন মন্দিরে ৫ দিনের উৎসব

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২২, ৫:৫৫ পিএম

ইসকন সিলেট মন্দিরে ৫ম দিনের বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা উৎসব সাঙ্গ হলো। রোববার হাজার-হাজার ভক্ত ও অনুরাগীদের ভক্তিতে নানা আয়োজনের মধ্যদিয়ে শেষ হলো উৎসবটি। সমাপনী দিনের অনুষ্টান সূচির মধ্যে ছিল সকাল ৮টায় শ্রীমদ্ভাগবতীয় প্রবচন, সকাল ৯টায় দীক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রবচন, সকাল ১০টায় দীক্ষানুষ্ঠান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শ্রীমদ্ভাগবতীয় প্রবচন ও রাত সাড়ে ৮টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রোববার সমাপনী দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশনের প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)।

৫ম দিনের উৎসবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন পেশা, শ্রেণি ও বয়সের মানুষের ঢল নামে মন্দিরে। দেশ ও বিদেশ থেকে আগত ভক্ত অনুরাগীদের উপস্থিতে পুরো মন্দির এলাকা যেনো তীর্থস্থান হয়ে উঠেছে। উৎসবে শ্রীমৎ ভক্তি অদ্বৈত নবদ্বীপ স্বামী মহারাজের তত্বাবধানে বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা করেন শ্রীল জয়পতাকা স্বামী গুরুমহারাজ। তার প্রবচন শুনতে ও তাঁকে একনজর দেখতে দেশ বিদেশ থেকে হাজার-হাজার ভক্ত ছুটে আসেন সিলেট ইসকন মন্দিরে। উৎসবে উপস্থিত ছিলেন শ্রীধাম মায়াপুর থেকে আসা শ্রীমৎ ভক্তিপুরুষোত্তম স্বামী মহারাজ, বাংলাদেশের সন্ন্যাসী শ্রীমৎ ভক্তিপ্রিয়ম গদাধর গোস্বামী মহারাজ, শ্রীমৎ ভক্তি অদ্বৈত নবদ্বীপ স্বামী মহারাজ, শ্রীমৎ ভক্তিবিনয় স্বামী মহারাজ, শ্রীধাম মায়াপুর থেকে আগত শ্রীমৎ ভক্তি বিজয় ভাগবত স্বামী মহারাজ, ইসকন বাংলাদেশ জিবিসি প্রতিনিধি শ্রীপাদ নাড়–গোপাল প্রভু, ইসকন বাংলাদেশ সাধারণ সম্পাদক শ্রীপাদ চারুচন্দ্র দাস ব্রহ্মচারীসহ বিভিন্ন কমিটির নেতৃবৃন্দ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ