Inqilab Logo

রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৮ সফর ১৪৪৪
শিরোনাম

ম্যানইউর আরেকটি লজ্জার রাত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

শেষ কয়েক মৌসুম ধরেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মুখোমুখি হচ্ছে বিচিত্র সকল অভিজ্ঞতার। যা অব্যাহত এই মৌসুমেও। এবার প্রথম ম্যাচেই ওল্ড ট্রাফোর্ডে ব্রাইটনের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে হেরেছে তারা। যা এই প্রতিপক্ষের নিকট ঘরের মাঠে রেড ডেভিলদের ইতিহাসের প্রথম হার। গতপরশু রাতে ইপিএল আরেকটি লজ্জার ইতিহাসের সাক্ষী হলো এরিক টেন হাগের শিষ্যরা। ব্রেন্টফোর্ডের মাঠে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হলো ইউনাইটেডকে। যার ফলে ওয়েস্ট লন্ডনের ক্লাবটির বিপক্ষে ১৯৩৭ সালের পর প্রথমবারের মত হারের তিক্ত স্বাদ পেল ম্যানইউ!
ম্যাচের বয়স সবে ১০ মিনিট। জশ দাসিলভা ডিবক্সের বাহির থেকে যে শট নিলেন তাতে মোটেই জোর ছিল না। কিন্তু ডেভিড ডা হিয়ার হাত গলে সেই বল পৌঁছে গেল জালে। হতবম্ব হয়ে গেলেন খোদ স্প্যানিশ গোলকিপার। সেই অবস্থা কাটানোর আগেই তিনি করে বসলেন আরেক ভুল। কড়া মার্কিংয়ে ডি বক্সের বাহিরে দাঁড়ানো এরিকসনের কাছে বল পাস দিলেন। ডেনিশ মিডফিল্ডারের সাথে দাঁড়ানো ইয়েনসেন বল পেয়ে খুব সহজে গোলে পরিণত করলেন। সামনে দাঁড়িয়ে থাকা লিসেন্দ্রো মার্টিনেজের প্রতিরোধ করতে পারেননি। এই আর্জেনটাইন সেন্টারব্যাকের মাথার উপর লাফ দিয়ে ৩০ মিনিটের সময় কর্নার থেকে গোল আদায় করেন টনি ও বেন জুটি। ঠিক তার ৫ মিনিট পর পাল্টা আক্রমণ থেকে গোল করে ম্যানইউর লজ্জা আরো বাড়িয়ে দেন এমবিউমো। এই ম্যাচের আগে লিগে ম্যানইউকে প্রথমার্ধে ৪ গোল দিতে পেরেছিল কেবল টটেনহাম (২০২০) ও লিভারপুল (২০২১)।
ম্যাচ পরবর্তী আলোচনায় বিশ্লেষকরা বারবার বলছিলেন টেন হাগ তার হোমওয়ার্ক ঠিকঠাক করেননি। যদি করে থাকতেন তাহলে প্রতিপক্ষের লম্বা ফরোয়ার্ডদের বিপক্ষে ভারানেকে খেলাতেন। ৫ ফুট ৭ ইঞ্চির লিয়েন্দ্রোকে ঠেলে দিতেন না। মজার ব্যাপার হচ্ছে ইপিএলের সব স্ট্রাইকাররাই পাওয়ার ফুটবল খেলেন। সেখানে আয়াক্সের এক মৌসুমের বিশ্বয় লিয়েন্দ্রো কিভাবে গোটা মৌসুম রক্ষণ সামলাবেন? টেন হাগ অবশ্য সব রাগ ঝাড়লেন প্লেয়ারদের উপর, ‘আমি প্লেয়ারদেরকে আত্মবিশ্বাস রেখে ও দায়িত্ব নিয়ে খেলতে বলেছিলাম, যা তারা করেনি। দলকেই এই হারের দায় নিতে হবে। সমর্থকদের জন্য খারাপ লাগছে আমার।’ এই ম্যাচ সহ টানা ৭টি ম্যাচে প্রতিপক্ষের মাঠে হারের অভিজ্ঞতা হল ম্যানইউর যা ১৯৩৬ সালের পর আর হয়নি। যারফলে ৩০ বছর পরে লিগ টেবিলের তলানিতে অবস্থান হল দলটির।
নগর প্রতিদ্বন্দীদের হতশ্রী অবস্থার দিনে বোর্নমাউথকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচের প্রথমার্ধেই গুন্দোয়ান, ডি ব্রুইনা ও ফোদের গোলে এমনিতেই স্কোরলাইন ৩-০ করে ফেলেছিল পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। উল্টো ম্যাচের ৭৯ মিনিটের সময় ক্যানসেলর ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে বোর্নমাউথের লারমা আত্মঘাতী গল করেন।
এদিকে, ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে মপেলিয়ের বিপক্ষে ৫-২ ব্যবধানে জয় পায় পিএসজি। নেইমার পান জোড়া গোল। তবে দ্বিতীয়ার্ধের ৬ মিনিটের সময় তার ফ্লায়িং হেডে যে গোলটি করেন এই উইঙ্গার তাতে ব্রাজিলিয়ান ফ্যানরা বিশ্বকাপের আগে আশা নিয়ে বুক বাঁধতেই পারেন। এদিন আরো গোল পান এমবাপ্পে ও পিএসজি জার্সিতে অভিষিক্ত রেনাতো। তবে আর্জেনটাইন মহাতারকা মেসিকে থাকতে হয় গোল ও এসিস্ট শূন্য।
লা লিগায় ক্যাম্প ন্যু’তে রায়ো ভায়োকানোর বিপক্ষে পয়েন্ট হারিয়েছে বার্সালোনা। ম্যাচের প্রথম একাদশেই ছিলেন নতুন সাইনিং লোভান্দোভস্কি, রাফিনহা ও ক্রিশ্চিয়ানসেন। দ্বিতিয়ার্ধে কেসিকেও মাঠে নামান কোচ জাভি। কিন্তু সোনার হরিণ গোলের দেখা পায়নি কাতালান জায়ান্টরা। উল্টো দ্বিয়ার্ধের যোগ করা সময়ে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় দলটির কাপ্তান বুস্কেটসকে। যার ফলে লিগের প্রথম ম্যাচেই গোলশূন্য ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ম্যানইউর আরেকটি লজ্জার রাত
আরও পড়ুন