Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ইরাকি সেনাবাহিনীতে শিয়া গেরিলাদের অন্তর্ভুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ

| প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইরাকি সেনাবাহিনীতে শিয়া গেরিলাদের অন্তর্ভুক্তিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন জেনারেল জোসেফ ভোটেল বলেছেন, এর ফলে বাগদাদ ইরানের দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে। তিনি বলেন, অবশ্যই ইরাক সরকারের ওপর শিয়া অধ্যুষিত রাষ্ট্র ইরানের প্রভাব পড়বে যা আমাদের জন্য উদ্বেগের বিষয়। কেন্দ্রীয় কমান্ডের প্রধান ভোটেল যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ে ওয়াশিংটনভিত্তিক বিশেষজ্ঞদের এক প্যানেল বৈঠকে এ উদ্বেগের কথা প্রকাশ করেন। ইরাকের সংসদে গত সপ্তাহে বিতর্কিত ইরান প্রভাবিত শিয়া গেরিলাদের নিয়ে গঠিত হাশেদ আল শাবি সংগঠনটিকে
ইরাকি বাহিনীর সঙ্গে স্বাধীন বাহিনী হিসেবে অন্তর্ভুক্তির
অনুমতি দিয়ে একটি আইন পাস হয়। প্যানেল বৈঠকে ভোটেল আরও বলেন, গত বছর বিশ^ শক্তিসমূহের সাথে ইরানের পারমাণবিক চুক্তির পরও ইরানের মানসিকতার যে কোন পরিবর্তন হয়নি, সেটাই উদ্বেগের বড় কারণ। তিনি বলেন, তেহরান সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোকে মদদ দিয়ে যাচ্ছে। ইয়েমেন ও ইরাকসহ ওই
অঞ্চলে এক লাখ শিয়া গেরিলাকে মদদ দিচ্ছে ইরান। তিনি আরও বলেন, ২০১৩ সালে আব্দেল ফাত্তাহ আল সিসি’ সামরিক অভ্যুত্থানের
পর যুক্তরাষ্ট্র ও মিসরের মধ্যে সামরিক সম্পর্কের কোন
অবনতি ঘটেনি। মিডল ইস্ট মনিটর।



 

Show all comments
  • Ashraf Husain ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, ৭:২৯ এএম says : 0
    America is the most dangerous terrorist and criminal country in the world. It's the real enemy of the whole world.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইরাক

৪ নভেম্বর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ