Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
শিরোনাম

রাতে শালিস করে স্বামীর কাছে রেখে যায় ভাইয়েরা, সকালে বোনের লাশ

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০২২, ৫:২৬ পিএম

বিয়ের ৩ দিন পর থেকেই নির্যাতণের শুরু, টানা ৬ মাস চলেছে এই নির্যাতন। একদিন পূর্বেও পারিবারিক ভাবে বিচার শালিস করে মেয়েটি রেখে গেছে ভাইয়েরা। আজ সেই নির্যাতণেই খুন হয়েছেন গৃহবধূ ফারজানা।
নারায়ণগঞ্জের কুতুবপুর ইউনিয়নের পশ্চিম রসুলপুর এলাকায় মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) ভোরে পুতা দিয়ে আঘাত করে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। পরে ঘাতক স্বামীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে এলাকাবাসী।
নিহত ওই গৃহবধুর নাম ফারজানা (২৮)। সে পশ্চিম রসুলপুর এলাকার নুর নবীর মেয়ে।
প্রতিবেশীরা জানান, ফারজানার সাথে একই এলাকার রুবেল ৬ মাস পূর্বে বিয়ে হয়। ফারজানা প্রতিবেশীদের জানান, বিয়ের ৩ দিন পরেই ফারজানাকে নির্যাতন করা হয়। এরপর প্রায়ই নির্যাতন করা হতো। এরমধ্যে স্থানীয় ভাবে একাধীক বিচার শালিস হয়েছে তাদের। গত সোমবারও বিচার শালিস করে বোনকে রেখে যায় ভাইয়েরা। মঙ্গলবার ভোর রাতে মসলা বাটার পুতা দিয়ে মুখে ও মাথায় আঘাত করে ফারজানাকে হত্যা করে স্বামী।
ফতুল্লা মডেল থানার এসআই মোস্তফা কামাল খান জানান, স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। লাশ ঢাকা মেডিকেলের মর্গে রয়েছে। মসলা বাটার পুতা দিয়ে মুখে ও মাথায় আঘাত করা হয়েছে। বিস্তারিত তদন্তের পর জানান হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ