Inqilab Logo

সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

এক মাসেও গ্রেফতার করতে পারেনি বাহা উদ্দিন হত্যার এজাহারভুক্ত আসামীদের

হিলি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ আগস্ট, ২০২২, ৬:০২ পিএম

দিনাজপুরের হাকিমপুরে বাহা উদ্দিন (৩৬) হত্যার এক মাস অতিবাহিত হলেও এহাজারভুক্ত কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় নিহত বাহা উদ্দিনের পরিবার চরম আতংকে দিন কাটাচ্ছে। সেই সাথে মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন মামলার বাদী নিহত বাহা উদ্দিনের ছোট ভাই ইনছাব আলীসহ তার পরিবারের সদস্যরা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ জুলাই রাতে উপজেলার মধ্যবাসুদেবপুর গ্রামের আব্দুল মান্নানের মুদি দোকানের সামনে মৃত আবু তালেবের ছেলে বাহা উদ্দিনকে হত্যার মামলার ১ নং আসামীর দক্ষিন বাসুদেবপুর (মহিলা কলেজপাড়া) গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে ইমন (২৪) এর কাছে পাওনা ১৩ হাজার টাকা চাইলে ইমনসহ অন্যরা বাহা উদ্দিনকে গালিগালাজ করে। বাহা উদ্দিন প্রতিবাদ করলে তাকে প্রথমে কিলঘুষি মারতে থাকে। এক পর্যায়ে ১ নং আসামী ইমন তার কোমর থেকে চাকু বের করে হত্যার উদ্দ্যেশে বাহা উদ্দিনের বুক, পেটসহ পায়ের হাটুর উপরে রক্তাক্ত জখম করে দ্রুত পালিয়ে যায়।
এ সময় উপস্থিত লোকজন বাহা উদ্দিনকে আশংকাজনক অবস্থায় প্রথমে হাকিমপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করেন। দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে বাহা উদ্দিন মারা যান।
এ ব্যাপারে নিহত বাহা উদ্দিনের ছোট ভাই ইনছাব আলী ১৬ জুলাই হাকিমপুর থানায় দক্ষিন বাসুদেবপুর গ্রামের আমজাদ হোসেনের ছেলে ইমন (২৪) কে ১ নং ও দক্ষিন বাসুদেবপুর ( চুড়িপট্রি) গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে ইমন হোসেন ওরফে রিফাত (২৭) কে ২নং আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার নং-১০, তাং-১৬.০৭.২২ ইং।
নিহত বাহা উদ্দিনের মা সোনাভান কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার সন্তানকে তো আর ফিরে পাবো না। কিন্তু মামলার এক মাস পার হলেও আজও পুলিশ কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তিনি দ্রুত সময়ে আসামীদের আইনে আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

মামলার বাদী ইনছাব আলী ও নিহতের বোন সুখী বেগম অভিযোগ করেন, তাদের ভাই হত্যা করার পর ১৬ জুলাই মামলা দায়ের করা হয়। এক মাসেও পুলিশ কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি। আমরা প্রতিদিনই পুলিশের কাছে ধর্ণা দিচ্ছে। কিন্তু কোন কাজ হচ্ছে না। আসামীদের গ্রেফতার না করায় তাদের আত্মীয়স্বজন নানান ভাবে মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে। আমরা চরম আতংকে আছি। তারা অবিলম্বে আসামীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন।
এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হাকিমপুর থানার এসআই আব্দুল হামিদ জানান, এ মামলার সন্দেহভাজন দুজনকে আটক করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।
হাকিমপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু সায়েম মিয়া জানান, বাহা উদ্দিন হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামীদের গ্রেফতারে সর্বত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে। অচিরেই তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ