Inqilab Logo

বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

একে পার্টি তুরস্কে নতুন যুগের সূচনা করেছে : এরদোগান

তুরস্কের ইতিহাসে প্রথম নারী জেনারেল ওজলেম ইলমাজ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (একে) পার্টি দু’দশক আগে তুরস্কে এক নতুন যুগের সূচনা করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান। সোমবার তুর্কি প্রেসিডেন্ট এমন মন্তব্য করেন। একে পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে এরদোগান বলেন, ‘ঠিক ২১ বছর আগে ১৪ আগস্ট তারিখে তুর্কি জাতিকে আমরা একে পার্টির প্রতিষ্ঠার সুসংবাদ দিয়েছিলাম। এ বিষয়ে আমরা বলেছিলাম তুরস্কে আর কিছুই এখন আগের মতো থাকবে না। অর্থাৎ, সবকিছু ঢেলে সাজানো হবে।’ ২০০১ সালের ১৪ আগস্ট তারিখে প্রতিষ্ঠিত দলটি এরদোগানের নেতৃত্বে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করে এবং দেশটির রাজনীতিতে একটি নতুন দিগন্তের উন্মোচন করে। এরপর তিনি ২০০৩ সালে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী হন এবং ২০১৪ সাল থেকে দেশটির প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০০২ সালের ৩ নভেম্বর তারিখে একে পার্টি নির্বাচনে জয়ের মাধ্যমে তুরস্কের ক্ষমতা লাভ করে। এ সময় দলটি তুর্কি পার্লামেন্টের দুই-তৃতীয়াংশ আসনে জয় পায়। এ দলটি এক দশকেরও বেশি সময়ের মধ্যে দেশটির প্রথম রাজনৈতিক শক্তি যারা সম্প‚র্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগান বলেন, ‘২১ বছর আগে রাজনৈতিক অঙ্গনে পা রাখার মাধ্যমে একে পার্টি তুরস্কে নতুন যুগের সূচনা করেছে। এর মাধ্যমে দলটি দেশকে রসাতলে যাওয়া থেকে রক্ষা করেছে।’ তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি আশা করেন যে একে পার্টি ২০২৩ সালের তুর্কি নির্বাচনে জয়ী হয়ে তাদের সংগ্রামকে মহিমান্বিত করবে। কারণ, দেশের জন্য আরও অনেক কিছু করার আছে তাদের। এরদোগান বলেন, তুরস্ক ২০২৩ সালের যে ভিশন তৈরি করেছে তাতে শুধু দেশের গণতন্ত্র ও উন্নয়নে বিদ্যমান ঘাটতি পূরণের কথাই নয় বরং রাজনীতি ও অর্থনীতিতে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী রাষ্ট্র হওয়ার কথা উল্লেখ আছে। টিআরটি ওয়ার্ল্ড এ খবর জানিয়েছে। অপর এক খবরে বলা হয়, তুরস্কের সামরিক বাহিনীতে প্রথম একজন নারীকে জেনারেল পদে নিয়োগ করা হয়েছে। তুরস্কের ইতিহাসে প্রথম ওই নারী জেনারেলের নাম ওজলেম ইলমাজ। চলতি সপ্তাহে তাকে এই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে তুর্কি সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড। শনিবার দেশটির অফিসিয়াল গেজেট জানিয়েছে, তুর্কি সেনাবাহিনীর প্রথম নারী জেনারেল হিসেবে ওজলেম ইলমাজকে নিয়োগ করা হয়েছে। অন্যদিকে আরেক তুর্কি সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহ জানিয়েছে, গত শনিবার ওজলেম ইলমাজকে তুরস্কের সামরিক বাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে উন্নীত করা হয়। এর আগে তিনি দেশটির সেনাবাহিনীর সিনিয়র কর্নেল পদে কর্মরত ছিলেন। সংবাদমাধ্যমটি আরও জানিয়েছে, পদোন্নতি পাওয়ার পর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ওজলেম ইলমাজ এখন থেকে রাজধানী আঙ্কারায় অবস্থিত জেন্ডারমেরি অ্যান্ড কোস্ট গার্ড একাডেমির ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। ওজলেম ইলমাজ ছাড়াও চলতি সপ্তাহে তুরস্কের সামরিক বাহিনীর দুইজন লেফটেন্যান্ট জেনারেল, ১৬ জন মেজর জেনারেল এবং ১৩ জন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন। এছাড়া জেনারেল আরিফ সেতিন জেন্ডারমেরি জেনারেল কমান্ডের প্রধান হিসাবে দায়িত্বপালন অব্যাহত রাখবেন। এদিকে তুর্কি বার্তাসংস্থা আনাদোলু এজেন্সির বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সিয়াসাত জানিয়েছে, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েপ এরদোগানের সিদ্ধান্তে ওজলেম ইলমাজকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। এর আগে, মেজর জেনারেল ওজলেম ইলমাজ গার্হস্থ্য সহিংসতা মোকাবিলা করার জন্য সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তরের প্রধান এবং জেন্ডারমেরি জেনারেল কমান্ডের শিশু বিভাগের প্রধান ছিলেন। সিয়াসাত বলছে, গার্হস্থ্য সহিংসতা মোকাবিলা এবং শিশুদের সহায়তা করার জন্য বেশ কয়েকটি গ্রামীণ অঞ্চলে দল নিয়ে দায়িত্ব পালন করার পর তুরস্কের প্রথম মেজর জেনারেলের পদ লাভ করেন ওজলেম। তার ওই কাজের মাধ্যমে নারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধে ব্যাপক প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন ওজলেম। উল্লেখ্য, ১৯৭৬ সালে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে জন্মগ্রহণ করেন ওজলেম ইলমাজ। এরপর ১৯৯৭ সালে লেফটেন্যান্ট পদে সামরিক একাডেমি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন তিনি। টিআরটি ওয়ার্ল্ড, ডেইলি সাবাহ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরদোগান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ