Inqilab Logo

রোববার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৮ সফর ১৪৪৪
শিরোনাম

গণমাধ্যমে মিথ্যের হিসাব রাখছেন রোনালদো

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২২, ১২:০০ এএম

অন্তরে অতৃপ্তি রবে, সাঙ্গ করি মনে হবে, শেষ হইয়াও হইল না শেষ’। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়া নিয়ে গণমাধ্যমের গুঞ্জনকে তুলনা করা যায় রবীন্দ্রনাথের এই লাইন গুলোর সঙ্গে। এই দল বদলের আলোচনা অনেক হবার পরও কারও মন ভরে না। আর দল বদলের জানালা বন্ধের আগে এই গল্প যেন থামার পরও থামার লক্ষন নেই। গত মৌসুম শেষে খবর রটেছিল, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার জন্য ম্যানইউ ছাড়াতে চান পর্তুগীজ তারকা। সেই গুঞ্জনে পানি ঢেলে ম্যানইউর হয়ে মৌসুমের প্রথম দুই প্রতিযোগিতাম‚লক ম্যাচেই মাঠে ছিলেন দসিআর৭দ। এই সপ্তাহে ব্রেন্টফর্ডের বিপক্ষে ইউনাইটেডের ৪-০ ব্যবধানে পরাজয়ের পর নতুন খবর এলো বাজারে। এবার নাকি স্বয়ং ম্যানইউ কতৃপক্ষ রোনালদোকে বিক্রি করে দিতে চায়। এই ব্যাপার সংক্রান্ত নানা গুঞ্জন দীর্ঘদিন গায়ে মাখাননি রোনালদো। কিন্তু গতপরশু প্রতিক্রিয়া দেখালেন। গণমাধ্যমের উপর নিজের রাগ উগরে দিলেন পর্তুগীজ মহা তারকা। দাবি করলেন সংবাদমাধ্যমের তথ্যগুলো মনগড়া ও মিথ্যে। একই সাথে জানিয়ে দিলেন শিগগিরিই সত্যটা তুলে ধরবেন তিনি।
ইন্সটাগ্রামে একটি ফ্যান আইডি থেকে জনৈক এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন পোস্ট করা হয়। সেখানে উল্লেখ আছে, অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কোচ ডিয়েগো সিমিওনে রোনালদোকে তার দলে টানতে চান। এই পোস্টের জবাবে রোনালদো লিখেন, ‘সংবাদমাধ্যম মিথ্যে কথা বলছে। দুই সপ্তাহের মাঝেই সত্যটা জানবে ওরা (গণমাধ্যম), যখন সাক্ষাতকার প্রকাশিত হবে।’
রোনালদো যখন ব্যক্তিগত কারন দেখিয়ে প্রাক মৌসুমের প্রস্তুতিতে অনুপস্থিত ছিলেন। সেই সময়টাতে ইউরোপসহ সারা বিশ্বের গণমাধ্যম রোনালদোকে কখনো বায়ার্ন আবার কখনো চেলসিতে ভিড়িয়ে দিয়েছিল। অতি উতসাহী কিছু সংবাদমাধ্যম দাবি করেছিল, টেন হাগের পরিকল্পনাতে রোনালদো নেই। সেই দাবিকে স্বয়ং ডাচ কোচ প্রত্যাখান করেন। এসবের মাঝে রোনালদো ফিরে আসেন প্রস্তুতি পর্বের শেষ ম্যাচে। রায়ো ভায়াকানের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ৪৫ মিনিটের পর পর্তুগীজ অধিনায়ককে বদলি করে উঠিয়ে নেন ম্যানইউ ম্যানেজার। সেসময় রোনালদো সহ বেশ কজন খেলোয়াড় সন্ধ্যার জ্যাম এড়াতে মাঠে ছাড়েন ম্যাচ শেষ হবার আগেই। এই ব্যাপার নিয়েও গণমাধ্যম রটালো, যে দ্রæত ড্রেসিংরুম ত্যাগ করায় রোনালদোর উপর ক্ষেপেছেন টেন হাগ। কিন্তু ডাচ ম্যানেজারের সাফ কথা, ‘আমি বাকি প্লেয়ারদেরকে বলেছিলেম ব্যাপারটা ঠিক হয়নি। কিন্তু আপনাদের লক্ষ্য কেবল রোনালদোর উপরেই।’
কিন্তু সংবাদমাধ্যমতো থেমে নেই। আগের সকল মুখরোচক কাহিনীর পর এবার দিচ্ছে গল্পের সম্প‚র্ণ নতুন দিক। গত মৌসুমের শেষ থেকেই সংবাদমাধ্যমে আসা এই ধারাবাহিক খবরগুলোর মোটামুটি সবটাই মিথ্যে। এমনটাই দাবি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলের মালিকের, ‘আমার একটা নোটবুক আছে। গত কয়েক মাসে আমাকে নিয়ে ১০০ খবর এসেছে। এর মধ্যে কেবল ৫টি সত্য।’ এদিকে রোনালদোর সাবেক ম্যানইউ সতীর্থ ও বর্তমান ফুটবল বিশ্লেষক গ্যারি নেভিল রোনালদোকে এখনই কথা বলার অনুরোধ করেন। এই ইংলিশ ডিফেন্দারের মতে ক্লাবের বর্তমান হতশ্রী সময়ে আলোর পথ দেখাতে পারেন কেবল পর্তুগীজ তারকাই। নেভিল টুইটে লিখেন, ‘ভক্তদেরকে সত্যটা বলার জন্য সর্বকালের সেরাকে কেনো দুই সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে? এখনই উঠে কথা বল। ক্লাব সংকটে আছে এবং নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য নেতার দরকার। একমাত্র রোনালদোই এই সময়ে হাল ধরতে পারে।’
সব ধরণের খবর পরখ করার পরে একটা ব্যাপার স্পষ্ট। রোনালদো তার চুক্তির বাকি অংশ (আগামী জুন পর্যন্ত) ম্যানইউতেই থাকছেন। তবে এই মাসের শেষের দিকে যে সাক্ষৎকার আসছে, তাতে কি বোমা ফাটাবেন সেই অপেক্ষায় ফুটবলপ্রেমীরা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোনালদো


আরও
আরও পড়ুন